বিনোদন ডেস্ক : পরীক্ষায় নকলের অপরাধে শিক্ষক অপমান করায় আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছে ভিকারুন্নিসা নুন স্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী অরিত্রি। সন্তানকে হারিয়ে বাকরুদ্ধ মা- বাবা, তবে প্রতিবাদের সরব সহপাঠীরা। প্রশ্ন তুলেছেন স্কুল কর্তৃপক্ষের নৈতিকতা ও গভর্নিং বোর্ডের ভূমিকা নিয়ে। ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবিতে আগামীকাল থেকে পরীক্ষা বর্জনেরও ঘোষণা দিয়েছে অরিত্রির সহপাঠীরা।

ভিকারুন্নেসা স্কুলের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রি। পরীক্ষায় মোবাইল ফোন নিয়ে যাওয়ার অপরাধে তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে আগেই। পরবর্তী পরীক্ষাতে অংশ নিতে বাবা মাসহ দারস্থ হয় প্রধান শিক্ষকের কাছে।

পরিবার ও সহপাঠীদের দাবি, এসময় বাবা-মাসহ তাকে অপমান করা হয়। আর এতে আবেগপ্রবণ হয়ে আত্মহননের পথ বেছে নেয় অরিত্রি।

স্কুল কর্তৃপক্ষের এধরণের আচরণ নৈতিকতা পরিপন্থি কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। প্রশ্ন উঠেছে গভর্নিং বোর্ডের ভূমিকা নিয়েও। ন্যায্য বিচার না পাওয়া পর্যন্ত পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে অরিত্রীর সহপাঠীরা।

সহপাঠীরা বলে, `অরিত্রির বাবা-মাকে অনেক খারাপ কিছু বলা হয়েছে যা অরিত্রি সহ্য করতে পারিনি।`