কয়েক দিন আগে বিতর্কিত মন্তব্য করায় বিজেপি নেত্রী নূপুর শর্মাকে বহিষ্কার করা হয়। এর পরই নূপুর শর্মার মন্তব্যকে সমর্থন করে রাজস্থানের উদয়পুর নিবাসী একজন দর্জি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন, এর পরেই কানহাইয়া লাল নামের ওই দর্জিকে তাঁর দোকানে ঢুকে তাঁকে নৃশংসভাবে হত্যা করে দুই আততায়ী।

এমনকি এ ঘটনার ভিডিও তুলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে তাঁরা। এই ভয়ংকর ঘটনায় স্তম্ভিত ভারতীয়রা।

তাঁকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। একজন গরিব দর্জিকে খুন করার অপরাধে সরব হয়েছে গোটা বলিউড। সবাই ওই অপরাধীদের শাস্তি চাইছেন। এবার উদয়পুরকাণ্ডের তীব্র প্রতিবাদ করায় প্রাণনাশের হুমকি পেলেন অভিনেত্রী এবং প্রাক্তন ‘রোডিজ’ প্রতিযোগী নীহারিকা তিওয়ারি। যাঁকে ক্রমাগত হত্যার হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

নীহারিকা সম্প্রতি একটি ভিডিও পোস্ট করে উদয়পুর দর্জি হত্যার তীব্র নিন্দা করেছিলেন। এর পর থেকেই তিনি সামাজিক মাধ্যমে প্রাণনাশের হুমকি পাচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, পুলিশ জানিয়েছে, তাঁরা এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাননি। তবে প্রয়োজনে নীহারিকা নিরাপত্তা পাবে।

এদিকে নীহারিকা জানিয়েছেন, উদয়পুরে দর্জি হত্যার প্রতিক্রিয়া জানানোর পর থেকেই ইনস্টাগ্রামে হত্যার হুমকি পেয়ে আসছেন তিনি। এমনকি তাঁকে ‘ঘৃণা ছড়ানোর’ জন্যও অভিযুক্ত করা হচ্ছে। নীহারিকার কথায়, ‘আমি নূপুর শর্মার পক্ষ নিইনি, শুধু দর্জি কানহাইয়া লালকে যেভাবে খুন করা হয়েছিল তার বিরোধিতা করেছিলাম মাত্র। ’