রুহুল আমিন, আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ;আধুনিক প্রযুক্তিতে কৃষি জমি চাষ আবাদের জন্য একাধিক প্রয়োজনীয়তা থাকায় ট্রলি, ট্রাক্টর, ভুটভুটি কৃষকের কাছে খুবই জনপ্রিয়। কিন্ত বর্তমানে কৃষি কাজে ব্যবহার ছাড়াও গ্রামের গ্রামীণ সড়কে অবাধে চলছে ওই সব যানবাহন।

নওগাঁর আত্রাইয়ের বিভিন্ন সড়কে তাকাইলে দেখা মিলে খড় ইট বালু মাটি বহনকারী ট্রলি, ট্রাক্টর ভুটভুটি’র। দিনদিন বেড়েই চলেছে ওই সব অবৈধ যানবাহনের দৌরাত্ন্য। অপরদিকে বেপরোয়া চলাচলের কারণে প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা, সড়কে অকালে ঝরছে তাজা প্রাণ। আবার কাউকে বরন করতে হচ্ছে পঙ্গুত্ব।

কৃষি উন্নয়নের লক্ষ্য পুরণে এসব যান বিদেশ থেকে আমদানি করার অনুমতি প্রদান করে থাকেন সরকার। কৃষি কাজের জন্য এসব পাওয়ারট্রিলার ট্রাক্টর মেশিন ক্রয় করা হলেও অসাধু ব্যবসায়ীরা ব্যবহার করছে ইট বালু মাটিসহ পণ্য পরিবহনের কাজে।
উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ভুটভুটি স্ট্যান্ডে দেখামেলে সারি সারি ওই সব অবৈধ যানবাহনের।
যান বেপরোয়া গতিতে চলার কারনে যেমন ঘটে দুর্ঘটনা ঠিক তেমনি পরিবেশ ও শব্দ দূষনের সাথে সাথে দ্রুত নষ্ট হয় গ্রামীণ রাস্তাঘাট। দুষনের কারনে ২০১০ সালে সারা দেশে সব ধরনের ট্রলি চলাচল অবৈধ ঘোষণা করে সরকার এবং ট্রলি আটক করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় কিন্তু আইনের কোন তোয়াক্কা না করে প্রশাসনের নজরের সামনেই অবাধ বিচরণ করে লাইসেন্স বিহীন চালক দ্বারা চালিত অবৈধ ভয়ংকর এই বাহন গুলো। অসহায় পথচারী ধুলো বালি ভরা সড়কে যেন অসহায় পথিক মাত্র।

এ বিষয়ে কয়েকজন পথচারী বলেন, ইট বালু মাটি ভর্তি এসব গাড়ির পেছনে রাস্তায় চলাচল অসম্ভব বিপদজনক। বেপরোয়া গতির শব্দে পরিবেশের মারাত্নক ক্ষতি হচ্ছে প্রতিনিয়ত, ঘটছে দুর্ঘটনা। এমন ভয়াবহ দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন আনেক পথচারী অন্ধকারে নিমজ্জিত হয়ে পড়ছে তাদের জীবন। অবৈধ এই যানবাহন গুলো বন্ধে প্রশাসনের যথাযথ পদক্ষে দাবী করেন পথচারী ও সচেতন মহল।