সাভার প্রতিনিধি:সাভারের আশুলিয়া ভাই হত্যার মামলা তুলে না নেওয়ায় ইউনিয়ন যুবলীগ নেতার মাইক্রোবাসে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা। সোমবার (০৮ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ৪টার দিকে আশুলিয়ার পাথালিয়ার চাকল গ্রামের ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপিত সুমন পন্ডির বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ভুক্তভোগী সুমন পন্ডি  জানান, ২০১৭ সালের মার্চ মাসে তার বড় ভাই মোঃ আব্দুর রহিম মন্ডলকে নয়ারহাট বাজারে প্রকাশ্য গুলি করে মেরে ফেলা হয়। সেই মামলায় প্রধান আসামি বর্তমান পাথিলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পারভেজ দেওয়ানসহ ১৭ জন। এই মামলা তুলে ফেলার জন্য  তাকে বারবার সুমনের পরিবারের উপর হামলা ও হুমকি দেওয়া হয়। মৃত আব্দুর রহিমের স্ত্রী রুমা বেগম বলেন আমার স্বামীর  হত্যাকারীরা আমার দেবর ও আমার সন্তানকে বারবার হুমকি দিয়ে আসছে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য ,তারা আমার স্বামীকে মেরে ক্ষান্ত হয়নি এখন তারা আমার দেবর ও আমার সন্তানকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে, আমার স্বামীর বিচার না হওয়া পর্যন্ত এই মামলা তোলবো না বলে জানান রুমা বেগম দরকার পড়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাব তবুও মামলা তুলবো না।তিনি বলেন, গতকাল রাত ৪ টার দিকে বাড়িতে থাকা পালা কুকুরের আওয়াজে আমি ঘুম থেকে উঠি। পরে বাইরে বের হয়ে দেখি আমার গাড়িতে আগুন জ্বলছে। এসময় আমাকে দেখে আগুন ধরিয়েই সোহাগ, আমিনুর, হাকিম ও ভ্যাবলা নামের চারজন পালিয়ে যায়। তারা চেয়ারম্যানের লোক জন৷ ঘটনা স্থলে পরিদর্শন করে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সামিউল ইসলাম  বলেন, আমি ঘটনা স্থলে এসে পরিদর্শন করেছি। গাড়ির সামনের বেশ কিছু অংশে পুড়ে গেছে৷ তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।