আশুলিয়ায় মাত্র ৫ টাকা বেশি ভাড়া চাওয়ায় যাত্রীর লাথিতে মাথায় আঘাত পেয়ে মারা গেলেন আলিম হোসেন (৪০) নামের এক রিকশা চালক। এ ঘটনায় ফজলুল হক (৩৫) নামের ওই যাত্রীকে আটক করেছে পুলিশ।
নিহত আলিম হোসেন হোসেন গাজীপুরের বাগবাড়ি মধ্যপাড়া এলাকার জয়নাল মিয়ার ছেলে। তিনি অটোরিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন বলে জানা যায়।
সোমবার (০২ আগস্ট) আশুলিয়ার ধনাইট এলাকার একটি আঞ্চলিক সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

আটক ফজলুল হক (৩৫) শেরপুরের নালিতাবাড়ী এলাকার আব্দুল লতিফের ছেলে। তিনি বর্তমান গাজীপুরের কাশিমপুর এলাকায় বসবাস করেন।

পুলিশ জানায়, আজ সকালে আশুলিয়ার নরসিংহপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে ইউসুফ মার্কেট যাওয়ার কথা বলে রিকশায় ওঠেন ফজলুল হক নামের ওই যাত্রী। তিনি ইউসুফ মার্কেট এলাকায় পৌছলে রিকশাচালক আলিম হোসেন তার কাছে ৫ টাকা বেশি ভাড়া দাবি করেন। এ নিয়ে তারা বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন। বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে অটোরিকশা চালককে লাথি মেরে ফেলে দেন যাত্রী ফজলুল হক। এ সময় আলিম রিকশার সাথে ধাক্কা খেয়ে মাথায় প্রচন্ড আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে এবং ফজলুলকে আটক করে।
এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাচিব সিকদার বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার এবং একজনকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় একটি মামলা দায়েরর প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।