নিজস্ব প্রতিবেদকঃ মেহেরপুর সদর উপজেলার এক নম্বর কুতুবপুর ইউনিয়ন করোনা মহামারীর ধাক্কায় বন্ধ হয়ে যায় ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের তফসিল। তবে বসে নেই প্রার্থীরা, তফসিল ঘোষণার আগেই ইতোমধ্যে মাঠে ময়দানে প্রার্থীদের দৌড় ঝাপ শুরু হয়েছে এবং চেষ্টা চালাচ্ছে সকল প্রার্থীরা। কোন দিক দিয়ে ব্যতিক্রম নয় কুতুবপুর ইউনিয়নও, তাই আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নিয়মিত কুতুবপুর চেয়ারম্যান পদে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় আছে জনপ্রিয় মানবিক সাবেক ছাত্রনেতা ও কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সম্মানিত সভাপতি হাজী সাইফুল ইসলাম।

হাজী সাইফুল ইসলাম এলাকার গরিব দুঃখী ও অসহায় সাধারণ মানুষের কাছে তিনি অত্যন্ত আস্থাভাজন ব্যক্তি হিসেবে সু-পরিচিতি লাভ করেছেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে নিজেকে ব্যস্ত রেখেছেন সাধারণ মানুষের সেবায়। তিনি সাধারণ মানুষের স্বার্থে উন্নয়ন মূলক কাজের সাথে জড়িত রয়েছেন। সব সময় নিজের সামর্থ্যনুযায়ী গরীব দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। মহামারী করোনা কালে সাধারণ মানুষের সাথে থেকে তার সাধ্য অনুযায়ী বিভিন্ন সংগঠনের মাধ্যমে অনুদান দিয়েছেন এবং তিনি নিজেকে মানুষের সেবায় উৎসর্গ করে দিতে চান। আসন্ন নির্বাচনে এই কুতুবপুর ইউনিয়নে আরো বেশ কয়েকজন প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে – এদের মধ্যে অন্যতম হাজী সাইফুল ইসলাম এর নাম।এলাকাবাসী জানান, হাজী সাইফুল ইসলাম তাদের সকল বিপদে-আপদে এগিয়ে আসেন এবং আরও বলেন, আমরা হাজী সাইফুল কে আমাদের পাশে চাই। আসন্ন নির্বাচনে দলমত নির্বিশেষে উন্নয়নের স্বার্থে যুবক সমাজ সেবক ও মানবিক সাবেক ছাএনেতা ও কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী যুবলীগের সংগ্রমী সভাপতি হাজী সাইফুল ইসলাম কে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই।

হাজী সাইফুল ইসলাম বলেন, আমি সাধারণ মানুষের স্বার্থে উন্নয়নমূলক কাজ করব। তিনি আরও বলেন, সবসময় নিজের সামর্থ্যনুযায়ী গরীব দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি এবং এটা সবসময় অব্যাহত থাকবে এবং আমি যদি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে পারি এই কুতুবপুর ইউনিয়নে একটি মডেল ইউনিয়ন হিসেবে উপহার দিবো। এই সদর উপজেলায় আমার ইউনিয়ন থাকবে দুর্নীতি ও মাদক মুক্ত ইউনিয়ন ইনশাআল্লাহ। তিনি আরও বলেন, এই ইউনিয়ন সকল গরীব দুঃখী ও অসহায় মানুষের পাশে ছিলাম আছি আর ভবিষ্যতে থাকব এবং এলাকার উন্নয়নে সাধারণ মানুষের স্বার্থে যেন কাজ করতে পারি তাই সকলে আমার জন্য দোয়া করবেন। মহান আল্লাহ তায়ালা যেন আমাকে এই কুতুবপুর ইউনিয়নের খেদমত করার সুযোগ দেয়।