কক্সবাজারের চকরিয়ায় সবজি ক্ষেতে তাণ্ডব চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতিসাধনের অভিযোগে বন্য হাতির বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন নুরুল ইসলাম নামে এক কৃষক।

শনিবার (৬ আগস্ট) চকরিয়া থানায় জিডি করেন তিনি। হাতির তাণ্ডবে তার ক্ষেতের দুই লাখ টাকার সবজি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে দাবি করেন এই কৃষক।

কৃষক নুরুল ইসলাম উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের চা বাগান এলাকার বাসিন্দা।

জিডিতে কৃষক তিনি উল্লেখ করেন, ডুলাহাজারা ইউনিয়ননের রিংভং মৌজার উত্তর পাড়ার পূর্বপাশে বর্গা নেওয়া ১৪০ শতক জমিতে কয়েক হাজার টাকা খরচ করে বরবটি, শশা, লাউ ও করলাসহ বিভিন্ন সবজি চাষ করেছেন। ইতোমধ্যে কিছু সবজি বিক্রিও করেছেন। গত ৪ ও ৫ আগস্ট বনাঞ্চল থেকে নেমে আসা ১০-১২টি বন্য হাতি সবজি ক্ষেতে তাণ্ডব চালায়। এতে তার বেশিরভাগ সবজি নষ্ট হয়ে গেছে।

এ বিষয়ে নুরুল ইসলাম বলেন, “সবজি ক্ষেতে তাণ্ডব চালিয়ে বন্য হাতির পাল প্রায় দুই লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করেছে। ব্র্যাক ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে চাষাবাদ করেছি। হাতির পাল সবজি নষ্ট করে ফেলায় ব্যাংকের দেনা পরিশোধ কীভাবে করবো আমি। এজন্য ক্ষতিপূরণ চেয়ে থানায় জিডি করেছি।”

ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মো. শওকত আলী বলেন, “বন্য হাতির তাণ্ডবে কৃষক নুরুল ইসলামের সবজি ক্ষেত নষ্ট হয়ে গেছে। ফসল হারিয়ে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন তিনি।”

কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের চকরিয়া উপজেলার ফাঁসিয়াখালী রেঞ্জ কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, “ওই ইউনিয়নের চা বাগানসহ আশপাশের এলাকায় ইদানিং বন্য হাতি ব্যাপক তাণ্ডব চালাচ্ছে। দুদিন আগে নুরুল ইসলাম নামে এক কৃষকের সবজি ক্ষেত নষ্ট করেছে হাতির পাল। ওই কৃষক বিষয়টি আমাকে জানিয়েছেন। এ ব্যাপারে ক্ষতিসাধনের তথ্যসহ লিখিত আবেদন পেলে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে।”