মোঃ মহসিন হোসাইনঃ কচুয়া উপজেলার কড়ইয়া ইউনিয়নের পরানপুর গ্রামে স্বরস্বতী পূজা মন্দিরে ভাংচুর করার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার রাত ১০টায় পরানপুর সরকার বাড়ীর পূজা মন্দিরে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বুধবার রাতে পরানপুর গ্রামের মোল্লাবাড়ী ও চৌকিদার বাড়ীর কিছু উশৃঙ্খল যুবকরা স্বরস্বতী পূজায় মন্দিরে নাচ করতে চায়। তাদের বাধা দিলে তারা উত্তেজিত হয়ে পূজার প্যান্ডেল ভাংচুর করে তাদের বাড়ীর বিভিন্ন ফল জাতীয় গাছ উপড়ে ফেলে। পরে স্থানীয়রা কচুয়া থানার পুলিকে খবর দিলে উশৃঙ্খল যুবকরা দ্রæত স্থান ত্যাগ করে চলে যান।

সরকার বাড়ীর বাসিন্দা নারায়ণ সরকার বলেন, প্রতি বছর আমরা এলাকাবাসীর সহযোগিতা নিয়ে শান্তিপূর্ণ ভাবে পূজা-অর্চনা করি। গত বুধবার রাতে আমাদের স্বরস্বতী পূজা অনুষ্ঠানে একই গ্রামের মৃত আনু মোল্লার ছেলে আরিফুল ইসরাম, আলমগীর চৌকিদারের ছেলে বোরহান, রাব্বি, মিজানুর রহমানসহ ২০ থেকে ২৫জন উশৃঙ্খল যুবক পূজা অনুষ্ঠানে এসে অশোভনীয় কথা বলে, নাচ-গান বাজনা করতে চাইলে তাদের বাধা দিলে আমাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে পূজা অনুষ্ঠানে প্যান্ডেল ভাংচুর সহ আমাদের বাড়ীর টিনের বেড়া ভাংচুর করে।

এ ব্যাপারে কচুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মহিউদ্দিন বলেন, বিষয়টি আমি শুনে সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। পরের দিন আমি নিজেই ঘটনা স্থলে গিয়েছি, যারা এই কাজ করছে তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।