কয়রা(খুলনা)প্রতিনিধিঃ কয়রা উপজেলা প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে  শ্রমিকদের পাওনা টাকা পরিশোধ না করায় গত ৮ জুলাই সকাল ১০ টায় উপজেলা সদরের তিন রাস্তার মোড়ে ইমারত শ্রমিকরা পাওনা টাকা পরিশোধের দাবিতে মানববন্ধন করেছে। মানববন্ধন শেষে ইমারত শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আশরাফ হোসেন জানান,শ্রমিকরা উপজেলা প্রকৌশলীর সরকারী বাস ভবনে কাজ করে টাকা চাইলে  তিনি টাকা না দিয়ে আমাদের ঘুরাচ্ছেন সে জন্য আমরা পাওনা টাকা পরিশোধের দাবিতে মানব বন্ধন করেছি। শুধু তাই না উপজেলা প্রকৌশলী আমাদের সাথে দুর ব্যবহার করেছে। এবং একজন কর্মকর্তা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেছে। আমরা তার বিরুদ্ধে শাস্তির দাবি জানাই।উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ আজিজুর রহমান বলেন, শ্রমিকরা যে টাকার কাজ করেছে আমি সে টাকা দিতে চাইলে তারা নিতে রাজি হয়নি। তবে উপজেলা প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে অনেকই বিভিন্ন অভিযোগ শুরু করেছে। কয়রা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিজয় কুমার সরদার বলেন, উপজেলা ইজ্ঞিনিয়ার কোন মানুষের মুল্যায়ন করনে না ,তিনি আমার ইউনিয়ানে যে কাজ করেছেন তা অত্যান্ত নিম্ম মানের। ইউপি ভবনে ৯ লাখ টাকার রংএর কাজ লবন পানি দিয়ে রং টানার কাজ করে বিল সাবমিট করেছে। এ ধরনের অনিয়ম মেনে নেওয়া যায়না। উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল কুমার সাহা বলেন, শ্রমিকরা ইজ্ঞিনিয়ারের কাছে টাকা পাবে মর্মে আমাকে জানালে আমি উপজেলা চেয়ারম্যান ও থানা অফিসার ইনচার্জকে জানিয়েছি। উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এসএম শফিকুল ইসলাম বলেন, ইজ্ঞিনিয়ার বিষয়টি আমাকে জানালে আমি তাদের টাকা পরিশোধ করে দেওয়ার কথা বলি কিন্তু তিনি টাকা পরিশোধ করেননি ।