চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ সীমান্তবর্তী জেলা চুয়াডাঙ্গায় হঠাৎ বেড়েছে করোনাভাইরাসের সংক্রমন। আক্রান্তদের মধ্যে অধিকাংশের বাড়ি দামুড়হুদা উপজেলার সীমান্তবর্তী কার্পাসডাঙ্গা এলাকায়।

করোনাভাইরাসের সংক্রমন বাড়ায় আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার ভারত সীমান্তবর্তী কার্পাসডাঙ্গা এলাকা আংশিক লকডাউন করেছে উপজেলা প্রশাসন। দর্শনা চেকপোস্ট দিয়ে ভারত ফেরতদের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত ১১ জনের মধ্যে ৭ জনের বাড়িও দামুড়হুদা উপজেলায়।

এছাড়া ভারত সীমান্তবর্তী হওয়ায় ওই উপজেলার হরিরামপুর ও শিবনগর গ্রামের সাধারণ মানুষকে করোনা পরীক্ষা করছে স্বাস্থ্য বিভাগ।
আজ সকাল থেকে শিবনগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কোভিড-১৯ র্যা পিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করা হচ্ছে। পরীক্ষায় ৮ নারীসহ ১৮ জন করোনা শনাক্ত হয়েছেন।

এদিকে, গত ২৪ ঘন্টায় এ জেলায় নতুন করে ১৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ হাজার ৯৯৯ জনে। এরমধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৮১৯ জন ও মারা গেছেন ৬৮ জন।

দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু হেনা মোহাম্মদ জামাল জানান, আজ সকাল থেকে তাদের র্যা পিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করা হচ্ছে। দুপুর পর্যন্ত ৮৭ জনের করোনা পরীক্ষায় ৮ নারীসহ ১৮ জন করোনা শনাক্ত হয়েছেন।

দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিলারা রহমান জানান, করোনার সংক্রমন বাড়ায় আজ কার্পাসডাঙ্গা এলাকার ৬ টি স্পট লকডাউন করা হয়েছে। ওই এলাকার চুল ব্যবসায়ীদের সকল কার্যক্রম এক মাসের জন্য স্থগিত করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এদিকে জেলার যুব উন্নয়ন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার পর ৫১ জনকে ছাড়পত্র দিয়েছে জেলা প্রশাসন।