নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সারাদেশে মহামারী করোনা সংক্রমণের পর এই এপ্রিলের প্রথম আট দিনে নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ৫৪ হাজার এবং সুস্থ হয়েছেন সাড়ে ২২ হাজার। এক্ষেত্রে প্রতিদিন গড়ে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে ৪ হাজারের বেশি। কিন্তু দেশের সব হাসপাতালে করোনার বেড রয়েছে সাড়ে ১০ হাজার। যার ফলে এ হারে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লে চিকিৎসা ব্যবস্থা ভেঙে পড়ার শঙ্কা বিশেষজ্ঞদের।

২০২১ সালের এপ্রিলে গড়ে প্রতিদিন ৬ হাজার ৮৫৩ জন করোনা রোগী শনাক্তের বিপরীতে সুস্থ হচ্ছেন মাত্র ২ হাজার ৮২৮ জন। অর্থাৎ প্রতিদিন নতুন করে যুক্ত হচ্ছে ৪ হাজার ২৫ জন করোনা রোগী।

৮ এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশে করোনায় মোট শনাক্ত হয়েছে ৬ লাখ ৬৬ হাজার ১৩২ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৬৫ হাজার ৩০ জন। এ হিসাব অনুযায়ী বর্তমানে করোনা রোগী রয়েছে ১ লাখ ১ হাজার ১০২ জন। বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা যে, এভাবে রোগী বাড়তে থাকলে সবাইকে চিকিৎসা দেওয়া কঠিন হবে।

ঢাকার সরকারি-বেসরকারি ১৯ টি হাসপাতালে করোনার জন্য সাধারণ বেড রয়েছে ৩ হাজার ৬২২ টি, যার ৮৮ শতাংশে করোনার রোগী ভর্তি রয়েছে। এছাড়াও ঢাকায় ৩০৫ টি আইসিইউ বেডের বিপরীতে রোগী ভর্তি ২৯২ জন। চট্রগ্রামে আইসিইউসহ মোট বেড রয়েছে ৭১৮ টি, যার শতকরা ৫৬ শতাংশ ভর্তি। এক্ষেত্রে শুধু ঢাকা ও চট্টগ্রামে চাপ না বাড়িয়ে নিজ নিজ জেলায় চিকিৎসা নেয়ার পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

উল্লেখ্য যে, এপ্রিলের প্রথম ৮ দিনে সারাদেশে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৪৭৫ জনের। প্রতিদিন গড়ে মৃত্যু হয়েছে ৫৯ জনের।