আতিকুজ্জামান চঞ্চল, জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গা জেলার বাণিজ্যিক শহর হিসেবে পরিচিত ব্যস্ততম জীবননগর বাজারে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে প্রশাসনের পাশাপাশি পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলরা মাঠে নেমেছেন।

নিজে বাঁচুন, অন্যকে বাঁচান- এ শ্লোগান নিয়ে চুয়াডাঙ্গা -২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগরের নির্দেশনায় শুক্রবার সকালে পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম কাউন্সিলরদের সঙ্গে নিয়ে জীবননগর শহরের প্রাণকেন্দ্র জীবননগর বাসস্ট্যান্ডার্ডসহ বাজারের অলিগতিতে ঘুরে ঘুরে শহরে বিনা প্রয়োজনে না আসাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন।

করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে সবাইকে সরকারি বিধিনিষেধ মানতে আহবান জানান।

জীবননগর পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম বলেন,সরকার জনগণকে করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা করতেই লকডাউন দিয়েছে। সবার সাময়িক কষ্ট হবে।কিন্তু সংক্রমণ রোধে লকডাউনের বিকল্প পথ নেই।

আগে বাঁচতে হবে, তাই প্রত্যক সচেতন নাগরিকের উচিত সাধারণ মানুষকে লকডাউন ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা।

এদিকে লকডাউন বাস্তবায়নে প্রশাসনকে তৎপর দেখা গেছে।
জীবননগর থানার ওসি সাইফুল ইসলাম বলেন, জনগণ বিনা কারণে যাতে বের না হয় এ ব্যপারে আমরা কঠোর, মাস্ক ছাড়া কাউকে বাইরে বের হতে দেয়া হচ্ছে না।