বন্দর প্রতিনিধি: বন্দর উপজেলার চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ এম এ রশিদ কোভিশিল্ড নামে এই করোনাভাইরাস টিকা নিজে নিয়ে বন্দর বাসীকে উদ্বুদ্ধ করেন এবং সকলকেই এই টিকা নিতে আহব্যান জানান। ৭ ফেব্রæয়ারি (রোববার) সকালে বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমম্পেক্সে এ টিকা নেন এবং কোভিড-১৯ টিকাদান কেন্দ্র উদ্বোধন করেন। যান্তেপারা যায় এই টিকাটি অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার আবিষ্কার করা এবং ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি করা। বন্দর উপজেল স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্র্মকতা ডা: মেহবুবা সাঈদের সভাপতিত্বে কোভিড-১৯ টিকাদান কেন্দ্র্র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি, বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান ও বন্দর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ এম এ রশিদ বলেন, ভ্যাকসিন নিয়ে কোন সমালোচনা চাই না। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের জীবন রক্ষার্থে ভ্যাকসিন দিচ্ছি। এর আগে ভারত থেকে আনা এই ভ্যাকসিনকে ঘিরে বাংলাদেশে নানা রকম সমালোচনা হচ্ছে। সমালোচনার জেরে টিকা গ্রহণের জন্য মানুষের মধ্যে কাক্সিক্ষত পরিমাণ সাড়াও দেখা যায়নি বলে অনেকে মনে করেন। তবে এই টিকা আমি নিজে নিয়েছি আমার কাছে, এই টিকা সম্পূর্ণ নিরাপদ মনে হচ্ছে। আমি বন্দর বাসীর কাছে অনুরোধ করে বলতে চাই যেন ভ্যাকসিন নিয়ে কোন গুজব না ছড়ানো হয়। বাংলাদেশের অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা এ ভ্যাক্সিন নিয়েছে এবং আরো অনেকেই নেবেন। এসময় বন্দর বাসীকে উদ্বুদ্ধ করার জন্য বন্দর উপজেলার নির্বাহী অফিসার শুক্লা সরকার, বন্দর থানার অফিসার ইনচার্র্জ দীপক চন্দ্র সাহাসহ অনেকেই এ টিকা নিয়েছেন। বন্দর উপজেল স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্র্মকতা ডা: মেহবুবা সাঈদ বলেন, করোনা ভ্যাকসিন নিতে হলে অবসই তাকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশন করতে প্রয়োজন হবে জাতীয় পরিচয় পত্র এবং নাম, ঠিকানা, বয়স, পেশা, শারীরিক পরিস্থিতি, ফোন নাম্বার ইত্যাদি তথ্য। সুরক্ষা অ্যাপ পাওয়া যাচ্ছেন অ্যাপ স্টোরে। িি.িংঁৎড়শশযধ.মড়া.নফ – এই ওয়েব পোর্টালে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে টিকার জন্য নিবন্ধন করতে হবে। নিবন্ধন সম্পন্ন হলে মোবাইলে ঝগঝ এর মাধ্যমে ভ্যাকসিনের তারিখ ও কেন্দ্র জানিয়ে দেয়া হবে। অথবা ভোটার আইডি কার্ড নিয়ে কেন্দ্রে গেলে নিবন্ধন করা যাবে। নিবন্ধনের ভিত্তিতে কেউ টিকা দেয়ার পর তাকে একটি কার্ডে পরবর্তী ডোজের সময় ও তারিখ লিখে দেয়া হবে। অনলাইনে নিবন্ধনে সমস্যার মুখে পড়লে, জেলা উপজেলা বা ইউনিয়ন পর্যায়ের তথ্যকেন্দ্রে গিয়ে নিবন্ধন করতে পারেন।