নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কারাবন্দী লেখক মুশতাক আহমেদের কাশিমপুরের কারাগারে মৃত্যু ঘটেছে। লেখক মুশতাকের মৃত্যুর ঘটনার প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকায় মধ্যরাতে সংক্ষিপ্ত বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে বামপন্থী কয়েকটি ছাত্রসংগঠনের উদ্যোগে মিছিলটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। বের হওয়া এ মিছিল থেকে তাঁর মৃত্যুর জন্য রাষ্ট্রকে দায়ী করেছেন তারা।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) থেকে মিছিলটি বের হয়েছিল এবং শাহবাগ ও পরীবাগ মোড় ঘুরে আবার সেখানে ফিরে আসে।এছাড়াও সর্বশেষ রাত ১ টার দিকে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে তাঁরা সমাবেশ করেন।

মিছিলে অংশ নেওয়া লোকেরা বিভিন্ন ধরনের স্লোগান (‘লেখক মুশতাক মরল কেন, জবাব চাই’) দেন। ‘লেখক মুশতাকের হত্যাকারী রাষ্ট্র’ মিছিলের সামনে থাকা ব্যানারে এটি লেখা ছিল।

বিক্ষোভ মিছিলে বাংলাদেশ আদিবাসী ছাত্র সংগ্রাম পরিষদের ও বাংলাদেশ গারো ছাত্র সংগঠন (বাগাছাস) এর সাধারণ সম্পাদক অলিক মৃ, ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক দীপক শীল, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সভাপতি ও প্রগতিশীল ছাত্র জোটের সমন্বয়ক আল কাদেরী জয়, বিপ্লবীর ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ইকবাল কবির, ছাত্রফ্রন্টের (বাসদ মার্ক্সবাদী) সভাপতি মাসুদ রানা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে, সমাবেশ থেকে শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০ টায় শাহবাগে অবস্থান কর্মসূচি এবং বিকাল ৪ টায় কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা করা হয়েছে।