কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: কালিয়াকৈরে গার্মেন্টকর্মীকে উপর্যোপরি ধর্ষনকারীদের গ্রেফতার পূর্বক শাস্তির বাদীকে শনিবার সকালে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহা সড়কে উপজেলার চন্দ্রা এলাকার মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিথী আক্তার জানায়,ঢাকার আশুলিয়ার চক্রবর্তী এলাকাস্থ বেক্সিমকো কোম্পানীর শ্রমিক বিথী আক্তার (২০) সাথে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে ধামরাই এলাকার বৈন্না গ্রামের আব্দুস সাত্তারের সাথে।

যার সুত্র ধরে গত ৫ জানুয়ারী বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে মোবাইল ফোনে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার আশাপুর কবরস্থানের পাশে ডেকে নেয় বিথীকে। ডিউটি শেষে রাত ১১টায় সেখানে পৌছালে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা প্রেমিক সাত্তার (৩০) মামুন(৩২) পিতা বিষু সাং বাউজা, সোহেল (২৫) পিতা হাবিবুর রহমান সাং দক্ষিন খাগাইল থানার ধামরাই। বিথীকে জোড়পূর্বক লেবু বাগানে নিয়ে উপর্যোপরি ধর্ষন করে। এসে সে অসুস্থ্য হয়ে পরলে রাত ৩টার দিকে অটোরিক্সা ভাড়া করে তাকে বাসায় পাঠিয়ে দেয়।

পরের দিন তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি বিভাগে ভর্তি করে। চিকিৎসা শেষে তিনি ১২জানুয়ারী ৩জনের নাম উল্লেখ করে কালিয়াকৈর থানায় অভিযোগ দাখিল করেন। পুলিশ অজ্ঞাত কারনে শুধু সাত্তারের নাম উল্লেখ করে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন আইন (সংশোধনী) ২০০৩ এর ৯ (১)ধারায় ১২ নং মামলা গ্রহণ করে। ঘটনার ১০ দিন পরে শনিবার ধর্ষকদের গ্রেফতার পূর্বক শাস্তির দাবীতে চন্দ্রা এলাকায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।