মোঃ শফিকুলইসলাম (দুখু) শ্রীপুর গাজীপুর প্রতিনিধি

গাজীপুর কালীগঞ্জ উপজেলার জামালপুর ৩নং ইউনিয়ন পরিষদের কাঁপাইশ গ্রামের বিনিরাইল এলাকায় জামাই মাছের মেলায় হাজারো মানুষের ভিড়। করোনা ভাইরাসের নতুন সংক্রমণ বিস্তারের মধ্যে মেলা।

শুক্রবার ১৪ই জানুয়ারী সকালে ফসলের মাঠে। অগ্রহায়ণের ধানকাটা শেষে পৌষ – সংক্রান্তি ও নবান্ন উৎসবে আয়োজন করা হয়েছে। প্রায় দেড়শত বছর আগের পুরোনো ঐতিহ্য মাছের মেলা এই মেলা প্রতি বছর হাজারও মানুষের মিলনমেলায় পরিণত হয়। সকালে কিছু লোক কমতি দেখাগেও বিকেলে দৃষ্টি চোখ পড়ার মতো।

ক্রেতা বা বিক্রেতারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার নেই কোন আগ্রহ। আয়োজন কমিটির নেই কোন স্বাস্থ্যসেবার ব্যবস্থা। প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই বসেছে রমরমাটে মেলা। সরজমিনে দৈনিক এই আমার দেশ।
বিনিরাইল এলাকায় বিশাল মাছের মেলা?

মাছের ডালা সাজিয়ে বসে বিক্রেতারা! দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ছোট বড় সাইজের মাছ নিয়ে এসছেন ব্যবসায়ীরা। এর মধ্যে সামুদ্রিক চিতল, বাঘাইড়, আইড়, বোয়াল, কালিবাউশ, পাবদা, গুলসা, গলদা চিংড়ি, বাইম, কাইকলা, রূপচাঁদা, লাল কোরাল, বড় কাতলা, পাশাপাশি স্থান পেয়েছে নানা রকমের দেশি মাছ। মাছের মেলাকে ঘিরে বসে খাবা বস্ত্র, কাঁচা বাজার, ফার্নিচার, খেলনা, মিষ্টি, কুটির শিল্পের ইত্যাদি পণ্যের দোকান।

আয়োজন কমিটির মাইক দিয়ে করোনাভাইরাসের সতর্ক অ্যালাউন্স করলেও মাস্ক পরার ব্যাপারে মানছেন না ক্রেতা বিক্রেতারা স্বাস্থ্যবিধি মালার আইন।