সোহেল মিয়া, কেরানীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সারাদেশে আবারো করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর এই জন্য জনসাধারণের অসচেতনতা, সামাজিক দূরত্ব বজায় না রাখা, মাস্ক পরিধান না করাকে দায়ী করেছেন বিশেষজ্ঞরা। সরকারের নো মাস্ক-নো সার্ভিস কর্মসূচি ও মাঠ পর্যায়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনায়ও ছিল ঢিলেঢালা ভাব। বর্তমানে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় আবারও কঠোর অবস্থানে সরকার। এরই ধারাবাহিকতায় কেরানীগঞ্জ মাস্ক ব্যবহার না করা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলায় জনসাধারণের মাঝে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়েছে।মঙ্গলবার (১৬ মার্চ) সকালে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার কোনাখোলা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন মডেল থানার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান সোহেল। এ সময় মাস্ক পরিধান না করায় ১১ জন পথচারীকে ১৫’শ  টাকা জরিমানা করা হয়, পাশাপাশি পরবর্তীতে মাস্ক ছাড়া আর বাহিরে বেড় হবে না মর্মেও ওয়াদা করানো হয়। 
অপরদিকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ইকুরিয়া বাজার ও হাসনাবাদ মোড়ে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (রাজস্ব) সানজিদা পারভীন তিন্নির নেতৃত্বে এবং দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানা পুলিশের সহায়তায় মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়। এ সময় মাস্ক না পড়ার অপরাধে ১৫টি মামলায় ৭৫০ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া শতাধিক জনসাধারণের মাঝে মাস্ক বিতরণ ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে কাউন্সেলিং করা হয়।
এই প্রসঙ্গে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান সোহেল বলেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় কেরানীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ জনগণকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে ও মাস্ক পড়তে উদ্বুদ্ধকরণে নিয়মিত মনিটরিং এর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে আজ আমরা একটি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেছি। আমাদের এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।