নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার নব-নির্বাচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করার প্রতিবাদে বসুরহাট রূপালী চত্বরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টায় বিক্ষোভ মিছিল ও জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে মেয়র মির্জা বলেন, আমাকে মামলার ভয় দেখিয়ে লাভ নেই, অতীতেও আমার বিরুদ্ধে, ১৮টি মামলা হয়েছে। আমি এসব মামলার ভয় করি না। আমি অপরাজনীতির বিরুদ্ধে কথা বলেছি। এতে কেউ আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করলে আমার কিছু বলার নেই। যত বাঁধাই আসুক আমি সাহস করে সত্য কথা বলব। সত্য বচনে একটুও পিছপা হব না। আমি এরশাদ বিরোধী আন্দোলন করতে গিয়ে মামলা খেয়েছি, মামলার ভয় দেখাবেন না, জিহান সাহেব রাজনীতি বুঝেন না, টাকা পয়সা অনেক বানিয়েছেন, এত টাকার মালিক কোথায় থেকে হলেন। কাকে দিয়ে মামলা করলেন, মামলার বাদী আপনাদেরকে নারী সাপ্লাই দেয়, সে মাদকের মামলার আসামী। আমি আদালতে গিয়ে এ মামলার মুখোমুখি হব, আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ’লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা খিজির হায়াত খান, সাধারণ সম্পাদক নুর নবী চৌধুরী, বসুরহাট পৌরসভা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আজম পাশা চৌধুরী রুমেল, চরপার্বতী ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক জহিরুল ইসলাম তানভীর, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি গোলাম ছারওয়ার, সাধারণ সম্পাদক লুৎফুর রহমান মিন্টু প্রমুখ।
বৃহস্পতিবার সকালে একরাম চৌধুরী ও সামছুদ্দিন জিহানের পক্ষে নোয়াখালী সদর ১০নং অশ্বদিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার ও ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ উদ্দিন বাদী হয়ে নোয়াখালীর সিনিয়র বিচারিক ম্যাজিষ্ট্রেট কোম্পানীগঞ্জ আমলী আদালতে আবদুল কাদের মির্জার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। আমলী আদালতের বিচারক অনুপস্থিত থাকায় ২৪ জানুয়ারী মামলার বাদীর জবানবন্ধি রেকর্ড করার কথা রয়েছে। উল্লেখ্য, গত ৫জানুয়ারী বসুরহাটের এক পথসভায় মেয়র আবদুল কাদের মির্জা একরাম চৌধুরী ও সামছুদ্দিন জিহানের বিরুদ্ধে বক্তব্য রাখেন। সে বক্তব্যে বাদী রিয়াজ দন্ডবিধির ২৯৮/৫০০/৫০১/ধারায় আদালতে অভিযোগ দায়ের করে।