সময়টা দারুণ কাটছে দীনেশ কার্তিকের। আইপিএলে অসাধারণ পারফরম্যান্সের সুবাদে দীর্ঘ সময় পর ভারতীয় দলে ফিরেছেন। জাতীয় দলে তার ব্যাটও কথা বলেছে ঠিকঠাক। অথচ কয়েক বছর আগেও কী ঝড়-ই না বয়ে গিয়েছিল তার জীবনে। সবচেয়ে কাছের বন্ধুই করেছিলেন তার চূড়ান্ত সর্বনাশ।

২০০৭ সালে মাত্র ২১ বছর বয়সে কত স্বপ্ন নিয়েই না ছোটবেলার প্রেমিকা নিকিতা বানজারাকে বিয়ে করেছিলেন কার্তিক। অথচ বিয়ের বছর পাঁচেক পরেই তাদের সুখের সংসারে আগুন লাগে। কার্তিকেরই তামিল নাড়ুর সতীর্থ মুরালি বিজয়ের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম শুরু করেন তার স্ত্রী।

ঘরোয়া ক্রিকেটে কর্ণাটকের বিপক্ষে খেলার সময় স্ত্রী এবং বন্ধুর পরকীয়ার খবর কানে আসে কার্তিকের। রাগে-ক্ষোভে বিমর্ষ হয়ে পড়েন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। পরকীয়ার খবর জানাজানির পর বিচ্ছেদ ভিন্ন আর কোনো পথ খোলা ছিল না কার্তিকের সামনে।

ভারতীয় দৈনিক এই সময় জানিয়েছে, ২০১২ সালে বিচ্ছেদের সময় অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন কার্তিকের স্ত্রী নিকিতা। কার্তিকের সঙ্গে ছাড়াছাড়ির কয়েক দিনের মধ্যেই নিকিতা বিজয়কে বিয়ে করেন।

২০১৮ সালে ভারতের হয়ে টেস্ট খেলতে ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিলেন কার্তিক এবং বিজয়। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, সেই সফরে তারা কেউই একে অপরের সঙ্গে একটি কথাও বলেননি।

২০১৫ সালে ভারতীয় স্কোয়াশ খেলোয়াড় দীপিকা পাল্লিকালকে বিয়ে করেন কার্তিক। অন্যদিকে বিজয়-নিকিতার সংসারে এখন রয়েছে তিন সন্তান।