সৈয়দ মিঠুন, ঘাটাইল (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি:
টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার উত্তর ধলাপাড়া গ্রামে ৭ বছরের শিশু লিয়ন হত্যা মামলার রহস্য
উদঘাটন করে হত্যাকান্ডে জড়িত আসামীকে গ্রেফতার করে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে আদালতে
চার্জশীট দিয়েছে থানা পুলিশ।
ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজহারুল ইসলাম সরকার জানান, ৫ আগস্ট
সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে উপজেলার উত্তর ধলাপাড়া গ্রামের মোবারক হোসেনের ছেলে
লিয়ন (০৭) বড়শি দিয়া মাছ ধরার জন্য বংশাই নদীতে যায়। মাছ ধরা শেষে বাড়ি ফিরে না
আসায় পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। এক পর্যায়ে ওই
দিনই বিকেল পৌনে ৪ টার দিকে তাদের গ্রামের ফজল হকের বাড়ি সংলগ্ন বংশাই নদীর
পাড়ে ঝোপের ভিতর লিয়নের মৃত দেহ দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ
ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করে এবং ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল
সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। পরে ৭ আগস্ট লিয়নের বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা
আসামী করে থানার মামলা করেন। তিনি আরও জানান, চাঞ্চল্যকর মামলাটির গুরুত্ব অনুধাবন
করে পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় এর নির্দেশে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি)
মীর মনির হোসেন ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোপালপুর সার্কেল সোহেল রানা, ঘাটাইল
থানার পুলিশ এবং টাঙ্গাইল ডিবি পুলিশের সহযোগীতায় টিম গঠন করা হয়। মামলার
তদন্ত কর্মকর্তা এসআই(নিঃ) আরিফুল হাসান, ধলাপাড়া পুলিশ ফাঁড়ি, ঘাটাইল থানা,
টাঙ্গাইলসহ ফোর্সদের নিরলস প্রচেষ্টা ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় বিশেষ অভিযান
পরিচালনা করিয়া অতিদ্রুত সময়ের মধ্যে হত্যা মামলার আসামী মোঃ আসলামকে (২৮)
গ্রেফতার করা হয়। সে উত্তর ধলাপাড়া গ্রামের -মোঃ জাহান আলীর ছেলে। আসলামকে
আদালতে সোপর্দ করিলে, তিনি নিজের দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় মোতাবেক বিজ্ঞ
আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন। ময়না তদন্ত রিপোর্ট দ্রুত পাওয়া
যাওয়ায় মামলার তদন্ত কাজ শেষ করে ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে।