ওসমান চৌধুরী, চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:
চট্টগ্রাম জেলার চন্দনাইশ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের নিন্মাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, কয়েক দিন মৌসুমী অবিরাম বৃষ্টিপাত হওয়ায় সাংঙ্গু নদীর পানি বিপদ সিমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।
চন্দনাইশ উপজেলার বৈলতলি, বরমা, চাগাচর দোহাজারী, ধোপাছড়ী ও সাতকানিয়ার শীলঘাটা, বৈতরণী পুরানগড়, বাজালীয়া সহ বিস্তৃর্ণ এলেকার সবজি ক্ষেত, আমন মৌসুমের বীজতলা ও বিভিন্ন ঘর বাড়ী পানিতে ডুবে যায়।
চন্দনাইশের বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিদর্শনে দেখাযায় বেশীরভাগ কৃষক ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছে।

অনেক কৃষক বলেন ব্যান্ক থেকে আগাম কৃষি লোন নিয়ে আমন ধান রোপনের জন্য বীজ ভোপন করাহয়। কিন্তু উজান থেকে অবিরাম বৃষ্টি বর্ষনের কারনে উত্তাল সাংঙ্গু ও ধোপাছড়ী ছড়ার পানির নিছে আমনের চারা। এই চারাগুলো বেশীরভাগ পৌঁছে যাবার সম্ভাবনা বলে যানায় স্থানিয় কৃষক।

এ ব্যাপারে পানি উন্নয়ন বোর্ড কৃষি অধিদপ্তরের সাথে যোগাযোগ করলে তারা জানান সাগরে সৃষ্ট লঘুচালের কারনে বিভিন্ন স্থানে ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে এবং নিন্মাঞ্চল প্লাবিত হচ্ছে।কৃষি অধিদপ্তর জানান ফসলি জমিথেকে পানি নেমে গেলে মাট পর্যায়ে কি করনীয় তা প্রশিক্ষন দেওয়া হবে।