আল আমিন, কুড়ালগাছি থেকেঃ আসন্ন ২য় পর্যায়ে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার কুড়ুলগাছি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন নিয়ে মানুষের মাঝে উওেজনার সৃষ্টি হয়েছে। জানা গেছে, কুড়ুলগাছি ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের জন্য তিনজন মনোনয়ন ফরম জমা দেন।তিনজন হলেন, সাবেক তিন তিন বার আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান ও কুড়ুলগাছি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব হবীবুল্লাহ বাহার, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সেক্রেটারী সরোয়ার হোসেন এবং সাবেক কুড়ুলগাছি ইউনিয়ন যুবলীগের সহ সভাপতি জনাব কাফিউদ্দিন(টুটুল)। তাদের তিনজনের মধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দেন কাফিউদ্দিন(টুটুল) কে। আর এ নিয়েই মানুষের মাঝে নানা চিন্তা ভাবনার সৃষ্টি হয়েছে।

লোকমুখে জানা গেছে যে, সাবেক তিন  তিন বারের আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান জনাব হবীবুল্লাহ বাহার কে নৌকা মনোনয়ন না দিয়ে কেন প্রথমবার নির্বাচনে আসা কাফিউদ্দিন(টুটুল) কে নৌকার মনোনয়ন দেওয়া হলো!কাফিউদ্দিন(টুটুল) কি পারবে নৌকার মান অক্ষুন্ন রাখতে! এ বিষয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের অন্যদেট কাছে গেলে তারা বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যাকে নৌকা দিয়েছে আমরা তার হয়ে কাজ করতে চাই। আমরা সকলে একে অপরের হাতে হাত রেখে নৌকাকে বিজয়ী করতে চাই’। তারা আরো বলেন যে, ‘পূর্বে আমরা নৌকা নিয়ে নিরলস ভাবে কাজ করে গেছি এবং ভবিষ্যতেও করতে চাই।এবং আগামীতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমরা নিজেরা নৌকার প্রত্যাশা রাখছি’।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগ হতে মনোনীত পাওয়া কাফিউদ্দিন(টুটুল) বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে আওয়ামী লীগের নৌকায় মনোনীত করায় আমি খুব খুশি এবং আমার ইউনিয়ন বাসীও খুব খুশি। সেজন্য সর্বপ্রথম কৃতজ্ঞতা ঞ্জাপন করছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সহ সকল আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীকে।আল্লাহ যদি সহায় হন তাহলে আমি আগামীতে কুড়ুলগাছি ইউনিয়নকে চুয়াডাঙ্গা জেলার মধ্যে রোল মডেল হিসেবে তৈরি করবো। আর ইউনিয়নের সকল মানুষের সুখে, দুংখে তাদের পাশে দাড়াবো। সব সময় ইউনিয়ন বাসীর জন্য নিরলস ভাবে কাজ করে যেতে চাই।তাই ইউনিয়ন বাসী সহ সকল মানুষের কাছে দোয়া ও সমর্থন চাই’।