জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) প্রতিনিধিঃ বৈশ্বিক মহামারী (কোভিট-১৯) করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকার ঘোষিত লকডাউন শতভাগ কঠোরভাবে কার্যকরের উপর গুরুত্বারোপ করে এক জরুরী মতবিনিময় সভা করেছেন জীবননগর উপজেলা প্রশাসন।

বুধবার দুপুরে জীবননগর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে জীবননগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আরিফুল ইসলামের (ইউএনও) সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মো. আলী আজগার টগর। চলমান লকডাউন কার্যকর বিষয়ে মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী মো. আলী আজগার টগর, মহেশপুর-৫৮ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল কামরুল হাসান, জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী মো. হাফিজুর রহমান, জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তূজা, জীবননগর পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ঈশা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ড. সেলিনা আখতার শিমু, জীবননগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম, জীবননগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উপধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ অমল, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ শাহ্, সোহরাব হোসেন খাঁন প্রমুখ।

মতবিনিময় সভায় বক্তারা বলেন, করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় সরকার ইতিমধ্যে দেশব্যাপী লকডাউন ঘোষণা করেছেন। সরকার ঘোষিত লকডাউন কার্যকর করার জন্য সকলকে সমন্বয়ের মাধ্যমে শতভাগ কঠোরভাবে বাস্তবায়ন করতে হবে। পূর্বের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে লকডাউন বাস্তবায়নে সার্বক্ষণিক মাঠে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, আর্মি, পুলিশ, বিজিবি ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা মাঠে কাজ করছেন। লকডাউন চলাকালে সরকারের প্রজ্ঞাপন ঘোষিত শুধুমাত্র জরুরী সেবা সমূহের প্রতিষ্ঠানগুলো খোলা থাকলেও ওই প্রতিষ্ঠানে যারা নিয়োজিত থাকবে তাদের অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। বিধিনিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য হাজী মো. আলী আজগার টগর বলেন, মাস্ক না পরে কেউ বের হবে না এটা নিশ্চিত করা গেলেই করোনার সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব হবে। তিনি বলেন, মানুষকে সচেতন করে তোলার ক্ষেত্রে সরকারের পাশাপাশি মিডিয়া এবং সামাজিক সাংস্কৃতিক উদ্যোগকে সক্রিয় করতে হবে। লকডাউন মানাতে এলাকাগুলো তদারকি করবে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীরা। এ সময় লকডাউনের প্রভাবে কর্মহীনদের মধ্যে সরকারিভাবে ছাড়াও ব্যক্তিগতভাবে খাদ্য সহায়তা দেয়ার ঘোষনা দেন এমপি টগর।

সভায় সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।