চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ েচুয়াডাঙ্গায় স্বর্ণ পাচার মামলায় দুজনকে ১৪ বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল। মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল আদালত-১-এর বিচারক মোহা. রবিউল ইসলাম আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন। সাজাপ্রাপ্তরা হলেন মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলার দিতপুর গ্রামের মেসরিন ও বরিশাল জেলার বানারীপাড়া উপজেলার দরিশর গ্রামের সৈয়দ রুমান।

মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, গত ২০ জুন ওই দুই ব্যক্তি অবৈধভাবে বাংলাদেশ থেকে ভারতে স্বর্ণ পাচারের জন্য চুয়াডাঙ্গার জয়নগর চেকপোস্ট এলাকায় আসেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চেকপোস্ট এলাকায় সন্দেহভাজন দুজনকে আটক করে দর্শনা আইসিপি বিওপির একটি টহল দল। পরে তাদের দেহ তল্লাশি করে ১০৫ ভরি ওজনের স্বর্ণের চেইন উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় দর্শনা আইসিপি বিওপির হাবিলদার জাহাঙ্গীর হোসেন বাদী হয়ে দামুড়হুদা থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন। দামুড়হুদা থানার এসআই মিল্টন সরকার ও এসআই গাজী আবু কাইয়ুম মামলায় দুজনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মঙ্গলবার স্পেশাল ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামলার সাক্ষীদের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামিদের উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন। রায়ে মেসরিন ও সৈয়দ রুমানকে ১৪ বছর করে কারাদণ্ড প্রদান করেন। রায় ঘোষণার পর পুলিশ প্রহরায় তাদের জেলা কারাগারে নেয়া হয়। আটককৃত স্বর্ণ রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করা হয়।###