হবহু পত্রিকার পাতায় নিউজটি পড়তে ছবিতে ক্লিক করুন

শৈলকুপা (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি: ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ভাটার পরিত্যক্ত আমা ইট দিয়ে এলজিইডির সড়ক সংস্কারের কাজ করছিলেন ঠিকাদার। শৈলকুপা- কাতলাগাড়ী সড়কে লুটপাট-দুর্নীতির এই মহোৎসবে জনতা ক্ষেপে গিয়ে বন্ধ করলে অবশেষে টনক নড়েছে এলজিইডির।


পায়ের পাড়াতেই ইট গলে ধুলো হয়ে যাচ্ছে ! এলাকাবাসীর অভিযোগ এমন নিম্নমানের কাজ নিয়ে সড়কের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের কাছে অভিযোগ দিলেও তারা কোন পদক্ষেপ এতদিন নেয়নি।

এছাড়া এলজিইডির কর্মকর্তারা অধিকাংশ সময়ই থাকেন অনুপস্থিত।
উপজেলা এলজিইডি সূত্রে জানা যায়, শৈলকুপা-কাতলাগাড়ী সড়কের মৌকুড়ি মাস্টার মোড় হতে কাতলাগাড়ী বাজার পর্যন্ত ৩ হাজার ৬৬০ মিটার কাজের সংস্কারের কার্যাদেশ পান মেসার্স শিকদার এন্টারপ্রাইজ, যার প্রাক্কলিত ব্যয় ২ কোটি ৬৫ লাখ টাকা।

সড়কটির গোয়ালবাড়ি গ্রামের আসাদুল হোসেন জানান, দীর্ঘদিন ধরে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নি¤œমানের ও ভাটার পরিত্যাক্ত আমা আট দিয়ে সড়কটি সংস্কার কাজ করে আসছে। তারা এ অনিয়ম নিয়ে এলজিইডির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের নিকট অভিযোগ দেন। কিন্তু কাজ চলাকালীন সময় এলজিইডির কোন কর্মকর্তা-কর্মচারী উপস্থিত থাকেন না।

শনিবার সকাল থেকে ফের নিম্নমানের ইট দিয়ে কাজ শুরু করলে এলাকাবাসি কাজে বাধা দেয়। বাধার মুখে তারা কাজ বন্ধ করে এলাকা ত্যাগ করে।

একই এলাকার বাসিন্দা তৈয়ব আলী বলেন, নিম্নমানের ইট দিয়ে কাজ শুরু করলে এলাকাবাসী বাধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তারা স্থানীয়দের উপর চড়াও হয়। পরে গণপ্রতিরোধে তারা কাজ বন্ধ করতে বাধ্য হয়। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের পক্ষে সড়কের সংস্কার কাজ তদারকি দায়িত্বপ্রাপ্ত আলী হাসান বলেন, কয়েক ট্রাক নিম্নমানের ইট এসেছিল তা তারা পরিবর্তন করে দিবেন বলে জানান।

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মালিক মুস্তাক শিকদার সাংবাদিকদের বলেন, তিনি বিভিন্ন ভাটা থেকে ইট ক্রয় করেছেন। হয়তো কোন ভাটা হতে কিছু নিম্নমানের ইট আসতে পারে। ঘটনাটি তিনি শুনেছেন। সংস্কার কাজের সাব ঠিকাদারকে তিনি ইট পরিবর্তন কারার জন্য বলে দিয়েছেন।

এ ঘটনায় শৈলকুপা-কাতলাগাড়ী সড়কটির সংস্কার কাজের দায়িত্বপ্রাপ্ত শৈলকুপা এলজিইডি অফিসের উপ সহকারী প্রকৌশলী মাহফুজুর রহমানের সাথে তার ব্যক্তিগত মোবাইলে কয়েকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি সাংবাদিকদের কলটি ধরেননি।

উপজেলা এলজিইডি অফিসের চলতি দায়িত্ব প্রাপ্ত প্রকৌশলী বিকাশ চন্দ্র নন্দী বলেন, কোন নিম্নমানের ইট দিয়ে সড়ক সংস্কার হবে না। এ ধরনের ঘটনা ঘটলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন বলে জানান।