আতিকুজ্জামান চঞ্চলঃ চুয়াডাঙ্গা জীবননগর পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের ভৈরব নদীর ধারে সরকারি বড় বড় চটকা  গাছ কেটে অবাধে তা-বিক্রয় করছেবলে অভিযোগ উঠেছে।
বৃহস্পতিবার সকালে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ৫ং নম্বর ওয়ার্ড দিয়ে বয়ে যাওয়া ভৈরব নদীর পাশে সরকারি জায়গায় মোটা মোটা চটকা গাছ কেটে বিক্রয় করছে। 
পৌরসভার ৫ং নম্বর ওয়ার্ডের লক্ষ্মীপুর গ্রামের বাসিন্দা মোছাঃ নাছি বেগম স্বামী মইদুল
 সরকারি গাছ  বিক্রি করেন।বিষয়টি স্থানীয়  বন কর্মকর্তা  অবহিত করলেও তারা এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করেননি।
সরেজমিনে দেখা যায়    টিলার অবাধে কাটা হচ্ছে গাছ।গাছ কেটে গাড়িতে করে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হলেও গাছের গোড়ার অংশ ও ডালপালার চিহ্ন এখনো পড়ে আছে সেখানে। আরেকটি টিলায় গাছ কাটার সময় পত্রিকার সাংবাদিক দের উপস্থিতি টের পেয়ে গাছ কাটা শ্রমিকরা  কৌশলে অন্যত্র সরে যান। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক গ্রামবাসী এই আমার দেশকে বলেন নদী খনন এর কথা শুনে ইচ্ছামত সরকারি গাছ কেটে বিক্রি করছে। এ ব্যাপারে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছে এলাকাবাসী।