নিজস্ব প্রতিবেদক : আওয়ামী লীগের উপকমিটি থেকে অব্যাহতি পাওয়া হেলেনা জাহাঙ্গীরের মালিকানাধীন আইপি টিভি জয়যাত্রা টেলিভিশন ও জয়যাত্রা ফাউন্ডেশনের কার্যালয়ে অভিযান চালিয়েছে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) দিনগত রাত ২টা থেকে এ অভিযান শুরু হয়। শুক্রবার (৩০ জুলাই) ভোর ৪টা পর্যন্ত চলা সেই অভিযানের নেতৃত্ব দেন র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাদির শাহ।

অভিযান শেষে তিনি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, অভিযান পরিচালনার সময় আইপিটিভি জয়যাত্রা টেলিভিশন নামক চ্যানেলটির কোন বৈধ কাগজপত্র পাওয়া যায়নি। তদন্ত করে যদি বৈধ কাগজপত্র না পাওয়া যায় তাহলে চ্যানেলটি বন্ধ করা হতে পারে। টেলিভিশনটিতে কর্মী নিয়োগে বাণিজ্যের অভিযোগও তদন্ত করা হচ্ছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সংবাদমাধ্যমকে আরও বলেন, এই ভবনটিতে জয়যাত্রা ফাউন্ডেশন এবং জয়যাত্রা টেলিভিশন নামে দুটি প্রতিষ্ঠানের অফিস আমরা পেয়েছি। সম্প্রচার চ্যানেল হিসেবে যেসব সেটআপ থাকা দরকার তার সব কিছুই এখানে রয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, জয়যাত্রা টেলিভিশন এর মাধ্যমে দেশে এবং দেশের বাইরে প্রতিনিধি নিয়োগের নামে অর্থ আদায় করে নিয়েছেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। এসব বিষয় আমরা খতিয়ে দেখছি। তদন্তের পর তার দুই প্রতিষ্ঠান জয়যাত্রা ফাউন্ডেশন ও আইপি জয়যাত্রা টেলিভিশনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এর আগে হেলেনা জাহাঙ্গীরের গুলশানের বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে র‍্যাব। এ সময় বাসা থেকে বিদেশি মদ ও মুদ্রা, হরিণের চামড়া, ক্যাঙ্গারুর চামড়া, ওয়াকিটকি সেট এবং ক্যাসিনো সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টা থেকে গুলশান ২ নম্বরে হোটেল ওয়েস্টিনের পেছনে ৩৬ নম্বর সড়কের ৫ নম্বর বাসায় এ অভিযান চালানো হয়। প্রায় চার ঘণ্টা অভিযান শেষে র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু এসব তথ্য জানান।

গত রবিবার আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক উপকমিটির সদস্যপদ থেকে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে অব্যাহতি দিয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।