ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ঝিনাইদহে প্রতিপক্ষের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার রাত ১১ টার দিকে সদর উপজেলার মধুপুর গ্রামের পূর্বপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে পোড়াহাটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম হিরনের সমর্থকদের সাথে একই এলাকার গিয়াস উদ্দিনের সমর্থকদের বিরোধ চলে আসছিল। গত ১৬ মে মধুপুর গ্রামে তর্ক-বিতর্কের এক পর্যায়ে উভয়পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে।এরই জের ধরে গেল রাতে শহিদুল ইসলাম হিরনের সমর্থক আমজাদ মোল্লা, বশির উদ্দিন, মিজানুর, রিপনের নেতৃত্বে শতাধিক লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে গিয়াস উদ্দিনের সমর্থকদের বাড়িঘরে হামলা চালায়। এসময় ওই গ্রামের ছবেদ মীর, আব্দুল্লাহ, ফিরোজ, নুর ইসলাম, মাসুদ হোসেন, বাটুল, আবু হানিফ, সুলতান, মতিয়ার, নান্টু, কামালের দোকানসহ ১২ টি বাড়ি ভাংচুর করা হয়। গরু, ছাগল, কবুতর, ধান লুট করে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ করে ভুক্তভোগিরা।ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। ঘটনার পর থেকে এলাকায় পুণরায় সংঘর্ষ এড়াতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।এদিকে আওয়ামী লীগ নেতা গিয়াস অভিযোগ করেছেন,হিরন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হওয়ায় পুলিশ তাকে সুবিধা দিচ্ছেন।লুটপাটকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন না।