নিজস্ব প্রতিবেদকঃ তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক  সম্পাদক মোঃ জাকির হোসেন মুন্সি।  তরুণ বয়সেই এগিয়েছেন বেশ সামনের দিকে।  
 উপজেলার ৬ নং ভিটিকান্দি ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের কৃতিসন্তান জাকির হোসেন মুন্সি বৃহত্তর  দাউকান্দি ও বর্তমান তিতাস উপজেলার ভিটিকান্দি ইউনিয়ন  ছাত্রলীগের সদস্য পদের দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০০১ সালে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা-১ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ থেকে নৌকা মনোনীত সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী সদ্যপ্রয়াত বিশিষ্ট দানবীর আ’লীগের মনোনীত হাসান জামিল সাত্তারের নির্বাচনে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন।     বৃহত্তর দাউদকান্দি ও বর্তমান তিতাস উপজেলার দাসকান্দিতে নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত হলে ওই নির্বাচনী সভায় নৌকার পক্ষে অগ্রণী ভূমিকা  পালন করেন। 
২০০৩ সালের ২২ শে জুন  বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের বিরুদ্ধে জোরালো  আন্দোলন করার জন্য জন্য  দাসকান্দি মাঠে এক প্রস্তুতিমূলক মিটিংয়ের  ডাক দেন স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। বৃহত্তর দাউদকান্দি ও বর্তমান তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আবু মোতালেব পারুল এর  সভাপতিত্বে ওই প্রস্তুতি মূলক মিটিংয়ে প্রধান অতিথি করা হয় মেজর জেনারেল (অবঃ) সুবিদ আলী ভূইয়াকে। 

তিনি দলের ক্রান্তিকালে গরু জবাই করে প্রায় ১ হাজার নেতা-কর্মীদের খাবারে ব্যবস্থা করেন নিজ বাড়িতে। তখন বিএনপি জামায়াতের ক্যাডার বাহিনী ও পুলিশ প্রশাসন মিলে ওই মিটিংটি  বানচাল করার চেষ্টা  করে। ওই বিএনপি-জামায়াত ও প্রশাসনের অপচেষ্টার বিরুদ্ধ জোরালো ভূমিকা রাখতে গিয়ে তখন জাকির মুন্সী বিভিন্ন জায়গা থেকে তার  বন্ধু বান্ধব এনে বিএনপি-জামায়াত ও পুলিশ প্রশাসনের সাথে সংঘর্ষ করে মিটিং সফল করেন।
মিটিংকে কেন্দ্র করে বিএনপির   মামলায় মেজর জেনারেল (অবঃ) সুবেদ আলী ভূইয়াকে ১ নং আসামী,ও জাকির হোসেন মুন্সীকে ৩ নং আসামী করা হয়। ২০০৪ সালে তিতাস উপজেলা গঠন হওয়ার পর জাকির হোসেন মুন্সী তিতাস উপজেলা আওয়ামী  স্বেচ্ছাসেবক লীগের পদ লাভ করেন। ১/১১ এসময় আসন বিন্যাসের কারনে তিতাসকে  হোমনার সাথে যুক্ত করা হয়। তখন হোমনা-তিতাস নির্বাচনী আসনে আওয়ামীলীগ থেকে নৌকা মনোনীত সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী অধ্যক্ষ আব্দুল মজিদের পক্ষে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা চালিয়েছেন জাকির মুন্সী। এর পর তিতাস উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দের নজরে পড়েন তিনি। জাকির মুন্সীর রাজনৈতিক দক্ষতা দেখে অধ্যক্ষ মজিদ তাকে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের  কার্যনির্বাহী সদস্য পদ দেন। তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শওকত আলী ও সাধারণ সম্পাদক কড়িকান্দি (সদর) ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মহসীন ভূইয়া জাকির মুন্সীর  দলীয় কর্মকান্ড দেখে তিতাস উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশা বিষয়ক সম্পাদক  হিসেবে দায়িত্ব প্রদান করেন। 
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কুমিল্লা ২ (হোমনা-তিতাস) আসনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ থেকে নৌকা মনোনীত সংসদ সদস্য পদ প্রার্থী সেলিমা আহম্মেদ মেরীর পক্ষে  দাসকান্দি সেন্টার পরিচালনার দায়িত্ব পালন করে ওই সেন্টারে নৌকা কে বিজয়ী করেন। ওই নির্বাচনে ভিটিকান্দি ইউনিয়নের সকল নেতাকর্মীদের খাবারের ব্যবস্থা করেন জাকির হোসেন মুন্সী। মাহামারি করোনা কালীন সময়ে সেলিমা আহমাদ মেরী এমপির নির্দেশে ভিটিকান্দি ইউনিয়নের গরীব অসহায় মানুষের জন্য চাল,ডাল তৈল, পিয়াজ,আলু নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী ও নগদ অর্থ প্রদান করেন।  
 তিনি বলেন, স্বাধীনতার স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে ও  বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার একজন সাধারণ কর্মী হিসেবে (হোমনা তিতাস) আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য সেলিমা আহম্মেদ মেরীর নির্দেশে ও  তিতাস উপজেলা পরিষদের  চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকারের পরামর্শে তিতাস উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শওকত আলী ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ মহসীন ভূইয়ার সাথে তিতাস উপজেলা আওয়ামী লীগের একজন ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে কাজ করে যেতে চাই। 
ভিটিকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের সকল নেতা-কর্মীরা অত্র ইউনিয়নের সার্বিক অবকাঠামো উন্নয়নের লক্ষ্যে আগামীতে ভিটিকান্দি ইউনিয়নের গুরুত্বপূর্ণ পদে জাকির হোসেন মুন্সীকে দেখতে চায়।