দামুড়হুদা প্রতিনিধি : দামুড়হুদার দর্শনা ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শহিদুল হত্যা কান্ডের প্রধান আসামী সুজনকে আটক করেছে দর্শনা থানা পুলিশ।
আজ মঙ্গলবার বেলা ৩ ঘটিকার সময় চুয়াডাঙ্গা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম দর্শনা থানায় এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান , ২ আগস্ট দিবাগত রাত ৩.৪৫ মিনিটের দিকে চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলামের দিক নির্দেশনায় , আমিসহ দামুড়হুদা সার্কেল এসপি এর সহযোগিতায় দর্শনা থানার ইনচার্জ মাহাব্বুর রহমান কাজলের নেতৃত্বে ঘটনার পর থেকে অভিযান অব্যাহত থাকে। এরিধারাবাহিকতায় ২ আগস্ট দিবাগত রাত ৩.৪৫ মিনিটের সময় ঝিনািইদহ জেলার মহেশপুর থানাধীন মানিকদিহি গ্রাম থেকে এক আত্মীয়র বাড়ি থেকে অত্র মামলার প্রধান আসামী সুজনকে আমরা আটক করতে সক্ষম হয় । উল্লেখ্য চুয়াডাঙ্গার দর্শনা ঈশ্বরচন্দ্রপুর গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক যুবকের হাতে শহিদুল নামের এক বৃদ্ধ নিহত হয় । ৩১ জুলাই শনিবার বেলা ১২ ঘটিকার সময় ঈশ্বরচন্দ্রপুর বড় মসজিদের সামনে এঘটনা ঘটে । জানাগেছে, গ্রামের আমজাদের ছেলে সুজন (১৮) ও শহিদুলের ছেলে ইলফাজ (১৬) মোড়ে পাপড় খাচ্ছিল । এসময় সুজনের পিতাকে নিয়ে গলা ছিলা বলে বাঙ্ক করলে ইলফাজ’র সাথে সুজনের কথা কাটাকাটি হয় । পরে ইলফাজের বাবা শহিদুল (৫৪) প্রতিবাদ করলে সুজন বাসা থেকে ছুরি এনে বাবা শহিদুল ও ছেলে ইলফাজকে ছুরিকাঘাত করে । এতে শহিদুল ও ইলফাজ মারাত্মক ভাবে রক্তাত্ব জখম হয় । আহত শহিদুলকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক শহিদুলকে মৃত্যু ঘোষনা করে ।