স্টাফ রিপোটার  সাথী, সিরাজগঞ্জঃ
চাল, ডাল, তেল, গ্যাস, বিদ্যুৎসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ক্রমাগত উর্দ্ধগতি’র  প্রতিবাদে  মানববন্ধন করেছে সিরাজগঞ্জে জেলা জাতীয় পার্টি।
কেন্দ্রীয় কর্মসূচি’র অংশ হিসেবে বুধবার (২৩শে মার্চ) সকালে সিরাজগঞ্জ শহরের চৌরাস্তায় জেলা কমিটির উদ্যোগে এ মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন, জাতীয় পাটির কেন্দ্রীয় কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা জাতীয় পাটির সভাপতি মোঃ আমিনুল ইসলাম ঝন্টু।
এ সময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জেলা জাতীয় পাটির সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা মির্জা ফারুক আহমেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মালেক তালুকদার, মির্জা সুমন আহমেদ, এস এম রাজু, দপ্তর সম্পাদক আনোয়ার হোসেন,কেন্দ্রীয় যুব সংহতির সদস্য আব্দুল জলিল, জেলা শাখার সভাপতি সাইদুল রহমান প্রমুখ। এসময় জেলা জাতীয় পার্টির বিভিন্ন অংগ সংগঠনের বিপুল সংখ্যক  নেতাকর্মীরাউপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধনে জাতীয় পার্টির আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে, জেলা মটর শ্রমিক ইউনিয়নের কোষাধ্যক্ষ মোঃ ফজলুর রহমান এর নেতৃত্বে পৌর এলাকার  বিভিন্ন ওয়ার্ড হতে আগত প্রায়  শতাধিক  নারী-পুরুষ যোগদান করে মানববন্ধনে অংশ গ্রহন করে।
উক্ত মানববন্ধনে  জেলা জাতীয় পাটির সভাপতি মোঃ আমিনুল ইসলাম ঝন্টু বলেন, ব্যবসায়ীরা নানা অজুহাতে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বাড়িয়ে চলেছে। এর ফলে প্রতিদিনই কোনো না কোনো দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি পাচ্ছে। সরকার দ্রব্যমূল্যের লাগাম টানতে শুল্ক রেয়াত দিলেও তার প্রভাব নেই বাজারে। মূলতঃ ব্যবসায়ীরা অধিক লাভবান হতে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে মূল্য বাড়িয়ে চলেছে। এ অবস্থায় সব শ্রেণিপেশার মানুষ আয়ের সঙ্গে ব্যয়ের সংগতি রাখতে পারছেন না।
দ্রব্যমূল্যের এ গতি রুখতে না পারলে সমাজে অস্থিতিশীল অবস্থার সৃষ্টি হবে। এ জন্য দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।
জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা মির্জা ফারুক আহমেদ তার বক্তব্যে বলেন, তৎকালীন জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠা প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ   মহুকুমা হতে  সিরাজগঞ্জ জেলা ঘোষণা করে
  সিরাজগঞ্জে ব্যাপক উন্নয়ন করেছিলেন। এরমধ্যে শহর রক্ষা বিশেষায়িত বাঁধ, এরশাদ হার্ড পয়েন্ট তৈরি করে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছেন। সে সময়ে  (এরশাদ সরকার) আমলে  মানুষের আয় ও দ্রব্যমূল্য ক্রয় ক্ষমতার স্বাভাবিক   ছিলো। বর্তমানে দ্রব্য মুল্যে উর্দ্ধগতির ফলে সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতা নাভিশ্বাস উঠেছে তিনি এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে দ্রুত সহনশীল পর্যায়ে আনার জন্যে সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের প্রতি দাবী জানান।