ইমরান খান, ধামরাই (ঢাকা) থেকেঃ ঢাকার ধামরাই উপজেলার সুতিপাড়া ইউনিয়নের নওগাঁ গ্রামে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি সৈয়দ মো: আকরামস হোসেনের বাড়ীতে রাতের আধারে ঘরের বারান্দার চাল খোলে দরজার তালা ভেঙে ঘরে ভিতরে ডুকে ঘরের মালামাল চুরি হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে প্রায় পাঁচ লক্ষধিক টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে।এই চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে এডভোকেট সৈয়দ মো: আকরাম হোসেন বাদি হয়ে ধামরাই থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

শনিবার (১৪ডিসেম্বর) ভোর রাতে উপজেলার নওগাঁ গ্রামে এই চুরির ঘটনা ঘটেছে।

এই ব্যাপারে এডভোকেট সৈয়দ মো: আকরাম হোসেন বলেন, আমার কর্মস্থলের সুবিধার্থে আমার পরিবার ও মাকে নিয়ে ঢাকায় বসবাস করিতেছি। অপর দিকে আমার ভাই ও তার পরিবার নিয়ে মানিকগঞ্জ বসবাস করিতেছে। আমাদের বাড়ীর চারদিকে উচু প্রাচীর দিয়ে ঘেরা এবং প্রতিটি ঘরে তালা দেওয়া। বর্তমানে আমাদের বাড়ীতে কেউ থাকে না। তবে অফিস ছুটি কালীন সময়ে আমি এবং আমার ভাই মাঝে মধ্যে পরিবার নিয়ে গ্রামের বাড়ীতে এসে থাকি।আজ শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় দুপুরে বাড়ীতে এসে দেখি আমার বাড়ীর উত্তর পাশে ভিটার ঘরের বারান্দার টিন খুলে ঘরের ভিতরে প্রবেশ করে ভেতরের ঘরের তালা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করিয়া ব্যাপক ভাংচুরসহ একটি ষ্ট্রীলের আলমারী সম্পুর্ণ রুপে ভাংগিয়া উহাতে রক্ষিত আমার মায়ের তিনভরি ওজনের একটি স্বর্ণের হার যাহার বর্তমান বাজার মুল্য প্রায় ১লক্ষ ৫০হাজার টাকা, এক জোড়া কানের দুল ও ১০ভরি ওজনের রুপার তৈরি অলংকার নিয়ে গেছে। এছাড়া আরেকটি ট্যাংকের তালা ভেঙে আমার লন্ডনের শিক্ষাকালী অর্জিত কিছু দরকারী কাগজ পত্রসহ প্রায় ২০টি জমি জমার কাগজ ও দলিল চুরি করিয়া নিয়ে গেছে। এতে প্রায় ৫লক্ষ টাকা জিনিস পত্র নিয়ে গেছে। তবে আমাদের ধারনা পৈতিৃক সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের জের ধরিয়া বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়েরের কারণে উক্ত ঘটনা ঘটাইয়াছে বলে ধারনা।

এই ব্যাপারে সুতিপাড়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার মো: আবুল বাশার বলেন, আজ দুপুরে লোকজনের মুখে শুনে ঘটনাস্থলে এসে দেখি ঘরের বারান্দার চাল খোলে ঘরের ভিতরে ডুকে ঘরের মালামাল সহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এবং জমি জমার দলিল চুরে কউ নিয়ে গেছে। সেই সাথে ঘরের ভেতরে আলমারী ও ট্যাংক গুলি ভেঙে ব্যাপক ক্ষতিসাধন করেছে।

এই ব্যাপারে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) মো: রফিকুল ইসলাম লিটন জানান, এডভোকেটের বাড়ীতে চুরির ঘটনা ঘটেছে। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করা হয়েছে। চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধারসহ চোরকে আটকের অভিযান অব্যাহত আছে।