উজ্জ্বল রায়, নড়াইল প্রতিনিধিঃ নড়াইলে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ও থানা পুলিশের পৃথক পৃথক অভিযানে ইয়াবা ও গাজাঁসহ ৪ মাদক ব্যবসায়ী আটক।খাগড়াছড়ি থেকে ইয়াবা বহনকারী ও নড়াইলের মাদক ব্যবসায়ীসহ ৩ মাদক কারবারীকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।নড়াইল গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি”র) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি সুকান্ত সাহার নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্সসহ (২৫সেপ্টেম্বর) শনিবার বিকালে নড়াইল সদর থানার আউড়িয়া ইউনিয়নের সিমাখালি গ্রামে অভিযান চালিয়ে মাদক বিক্রয়কালীন সময় খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা মুসলিম পাড়া গ্রামের মো:আজিজুর রহমানের ছেলে মো:শাকিল হোসেন (২৫),মাগুরা জেলার শালিখা থানার গঙ্গারামপুর গ্রামের মো:রোকন উদ্দিন এর ছেলে মো:ফারজান শেখ (৩৩) ও নড়াইল সদর থানাধীন বাগডাঙ্গা গ্রামের মো:নওশের শেখের ছেলে মো:সাগর শেখ (৩৬) দেরকে সিমাখালি গ্রাম থেকে ইয়াবা বিক্রয় করার সময় নড়াইল ডিবি পুলিশ হাতেনাতে আটক করেন।এ সময় তাদের দেহ তল্লাশি করে ৫১৬ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ও ইয়াবা বিক্রয় করা নগদ ৪৪ হাজার টাকা এবং মাদক বহনকারী একটি বাজাজ প্লাটিনা ১০০ সিসির মোটরসাইকেলসহ তাদের আটক করা হয়।এদিকে একই দিন বিকালে নড়াইল নড়াগাতি থানা পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে গোঁপন সংবাদের ভিত্তিতে নড়াগাতি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রোকসানা খাতুন এর নেত্রীত্বে এস আই নাজমুল হাচান সঙ্গীয় এসআই খান মাহবুবুর রহমান,এএসআই রবিউল ইসলাম,কনেষ্টোবল কামরুজ্জামান,মাইনুল,
বিপ্লব ও ইব্রাহিমসহ নড়াগাতি থানাধীন খাশিয়াল ইউনিয়নের খাশিয়াল-কালিয়া গামী রাস্তার শাহীন মুসুল্লির বাড়ির সামনের পাকা রাস্তার উপর (গাঁজা) বিক্রয়ের সময় নড়াগাতি থানাধীন খাশিয়াল ইউনিয়নের টোনা গ্রামের তারা সরদার এর ছেলে গাজাঁ ব্যবসায়ী মো:হিমু সরদার (৩৩) কে ৪০০ গ্রাম গাজাঁসহ হাতে নাতে গ্রেফতার করেন।নড়াইল পুলিশ সুপার প্রবীর কুমার রায় পিপিএম (বার)
জানান,পুলিশ জনগণের বন্ধু,মাদক একটি ভয়াবহ নেশা,যেটায় যুবসমাজ ধংশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।আপনারা জানেন,নড়াইল জেলা পুলিশ সর্বদা মাদকের বিরুদ্ধে তৎপর এবং নড়াইল জেলা পুলিশের বিভিন্ন টিম রাতদিন সর্বদা নড়াইল জেলা থেকে মাদকের শিকড়সহ উফড়ে ফেলতে কাজ করছেন এবং মাদকসহ মাদক ব্যবসায়ীদের আটক করছেন।আপনারা নড়াইল জেলা পুলিশকে অনিয়ম,দূর্নিতি,বাল্যবিবাহ্,মাদক,জঙ্গিসহ সকল প্রকার তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন এবং নড়াইল জেলাকে একটি সুন্দর মাদক মুক্ত জেলা হিসাবে গড়ে তুলুন বলেও জানান তিনি।