উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ     নড়াইলের কালিয়া উপজেলার পিরোলী ইউনিয়নের জামরিলডাঙ্গা
গ্রামে আরিফ খন্দকার (৪০) নামে এক বালুর ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষরা। শনিবার দিনগত রাত ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।নিহত আরিফ জামরিলডাঙ্গা গ্রামের নুরুল খন্দকারের ছেলে।কালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: রফিকুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও নিহতের স্বজন সূত্রে জানা যায়,আরিফকে শনিবার রাতে গ্রামের প্রতিপক্ষরা ডেকে নিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জামরিলডাঙ্গা গ্রামের পশ্চিমপাড়ায় বাবুল মোল্যার বাড়ির সন্নিকটে সড়কের পাশে ফেলে রেখে
যায়।আরিফের চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসলে দুবৃর্ত্তরা পালিয়ে যায়।পরে তাকে মূমুর্ষ অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত্যু বলে ঘোষনা করেন।
নিহত আরিফের ভাই পিরোলী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের সাবেক মেম্বর (সদস্য) ইরুপ খন্দকার জানান,তার ভাই আরিফ বালির ব্যবসা করতেন।ব্যবসার পাশাপশি স্থানীয় আওয়ামলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। পূর্ব শত্রæতার জের ধরে তার ভাইকে গ্রামের প্রতিপক্ষরা কুপিয়ে হত্যা করেছে। নিহতের স্ত্রী কুলসুম বেগম জানান, তার স্বামী রাতের খাবার খেয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান।পরে জানতে পারেন তার স্বামীকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে ফেলে রেখে গেছে সন্ত্রাসীরা। কালিয়া সার্কেলের এএসপি রিপন চন্দ্র শিকদার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

কালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: রফিকুল ইসলাম আরো বলেন, পূর্ব শত্রæতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হাতে আরিফ খুন হতে পারেন।বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।ঘটনায় জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে বলে ওসি জানান।