নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার কাদিরপুর ইউনিয়নের ঘাটলা গ্রামে ১৭মে রবিবার দুপুরে গোপাল মাষ্টার বাড়িতে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। জানাযায়, ঘাটলা গ্রামের ঘাটলা উচ্চ বিদ্যালয়ের অবঃ প্রাপ্ত সাবেক প্রধান শিক্ষক গোপাল চন্দ্র ভৌমিকের প্রায় ৩ একর সম্পত্তি ভূমিদস্যু সন্ত্রাসীরা জবর দখল করে মাছের ঘের করেছে। এ ব্যাপারে ৩নং ওয়ার্ড ঘাটলা গ্রামের কাশেমের বাড়ির ইব্রাহিম খলিল বাদশা ওই প্রজেক্টে ২০ শতাংশ সম্পত্তির মালিক হন। ভয়ে সংখ্যা লঘুরা প্রতিবাদ না করলে ও ইব্রাহিম খলিল বাদশা প্রতিবাদ করে সালিশ বৈঠক বসালে ২০/২৫ জন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী সালিশী বৈঠকে হামলা করে ইব্রাহিম খলিল বাদশার পকেটে থাকা ৮৭,৮১৩ টাকা সন্ত্রাসীরা সালিশে হামলা করে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

সন্ত্রাসীরা হল ঃ ১। মিজানুর রহমান (৩৪), ২। আইয়ুব সুজন (৩৮), ৩। হানিফ (৪০), ৪। মজিবুল হক, ৫। মুক্তার (৩০), ৬। রিয়াতুন (২৬), ৭। হুমায়ুন কবির (৪৫), ৮। আশিকুর রহমান (২৫), ৯। লিটন (৪২)সহ ২০/২৫ জন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী ধর ধর বলে সালিশী বৈঠকে বর্গীয় হামলা চালায়। ৩নং আসামী হানিফ মাষ্টার ছাত্রীকে শ্লীতাহানির ঘটনায় ঘাটলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি তাকে স্কুল থেকে বের করে দেয়।

৬নং আসামী বহুল আলোচিত স্ত্রী হত্যার যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী খুণী রিয়াদের ছোট ভাই রিয়াতুন। ওই হত্যা মামলা রিয়াতুন (২৫) ও এৎাহার ভুক্ত আসামী ছিল। আদালত থেকে জামিনে এসে সে আরও বেপরোয়া। সন্ত্রাসীরা ইব্রাহিম খলিল বাদশার স্ত্রী লাভলীকে পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। এ ব্যাপারে ১৭মে ইব্রাহিম খলিল বাদশা বাদী হয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানা অভিযোগ দায়ের করেন। এস.আই আবদুল ওয়াহেদ মামলাটি তদন্ত করবেন।