উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি:নড়াইলের লোহাগড়া পৌর শহরের গোপিনাথপুর এলাকায় গৃহশিক্ষক কর্তৃক শিক্ষার্থীর অন্তরঙ্গ মুহূর্তের দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করে বিয়ে ভেঙ্গে দেওয়ার অভিযোগে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত গৃহশিক্ষক আশরাফুজ্জামান রানাকে (৩০) গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। এ দিকে, সোমবার বিকালে অভিযুক্ত আশরাফুজ্জামান রানা নড়াইলের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমাতুল মোর্শেদার আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে।

এজাহার ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, লোহাগড়া পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের গোপীনাথপুর এলাকার মৃত মনিরুজ্জামান শেখের ছেলে গৃহশিক্ষক আশরাফুজ্জামান রানা ২০১৯ সালে একই এলাকার একজন শিক্ষার্থীকে প্রাইভেট পড়ানোর ছলে ও বিভিন্ন প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের চিত্র মোবাইল ফোনে ধারণ করে রাখেন। এ দিকে, পারিবারিক সম্মতিতে পাশ^বর্তী ধোপাদাহ গ্রামের আছাদ মোল্যার ছেলে সেনা সদস্য রাকিবুল হাসান মনির সাথে ওই শিক্ষার্থীর গত রোববার (২১মার্চ) বিয়ের দিন ধায্য করা হয়।