এস এম বেলাল, পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি: পটুয়াখালীতে যাত্রীবাহী বাস থেকে চাঁদা উঠাতে গিয়ে আবু রায়হান(২৪) নামে এক কথিত গণমাধ্যমকর্মীকে আটক করা হয়েছে। আটকের পর স্থানীয় জনতা ওই যুবককে পুলিশে সোর্পদ করে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে নিশ্চিত করেন দুমকী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মেহেদী হাসান।

সোমবার দুপুরে লেবুখালী ফেরীঘাট থেকে ওই যুবককে আটক করা হয়। আটককৃত রায়হান অনলাইন নিউজ পোর্টাল স্বাধীন বার্তার পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলা প্রতিনিধি বলে দাবি করেন। ঘটনার সময় পালিয়ে যায় রায়হানে আপন ভাইসহ অপর এক সহযোগী। রায়হান উত্তরবদরপুরের হাবিবুর রহমানের ছেলে।

ঘটনার বরাদ দিয়ে পুলিশ জানায়-সোমবার চলমান লকডাউন শিথিল হলে স্বাস্থ্য বিধি মেনে পটুয়াখালী থেকে কিছু যাত্রী নিয়ে বাস বরিশালের উদ্যোশে রওনা হয়। এসময় রায়হান স্বাস্থ্য বিধি উপেক্ষা ও অতিরিক্ত যাত্রী বহনের দায়ে আলিফ পরিবহনের সুপার ভাইজার স্বপন দাসের কাছে ৫ হাজার টাকা দাবি করে। অন্যথায় তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার হুমকী দেয় রায়হান।

এসময় বাসের চালক বুঝিয়ে-শুনিয়ে ৫‘শ টাকা হাতে ধরিয়ে শান্ত করার চেষ্টা করেন। এঘটনায় রায়হান ও বাসের লোকজনের সাথে বাকবিতন্ডা হলে আশপাশ থেকে লোকজন জরো হয়। খবর পেয়ে দুমকী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে রায়হানকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। আটকের সময় জনসম্মূখে রায়হানের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয়া টাকা উদ্ধার করে জনতা।

রায়হান নিজেকে সাংবাদিক বলে দাবি করে। একই ভাবে একটি ভুয়া চক্র ফেরীঘাটে এসে জাটকা ট্রাক ধরে অর্থ আদায় করে বলে দাবি করেন স্থানীয়রা।