সৈয়দুর রজমান সৈয়দ- পাকুন্দিয়া, কিশোরগন্জ,প্রতিনিধি ঃ কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলায় স্কুলপড়ুয়া দুই সন্তানের মুখে বিষ ঢেলে নিজেও বিষ পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছেন কল্পনা (৩০) নামের এক মা। শনিবার (২১ মার্চ) দুপুরে উপজেলার হোসেন্দী ইউনিয়নের কুমারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ওই নারী ও তার দুই শিশুসন্তানকে কিশোরগঞ্জ জেলারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ১০ বছর আগে কুমারপুর গ্রামের আব্দুল হেকিমের মেয়ে কল্পনার সঙ্গে তাড়াইল উপজেলার ছনহাটি গ্রামের রুবেলের বিয়ে হয়। বিয়ের তিন বছর পর থেকে স্ত্রীকে ভরণ পোষণ দেন না রুবেল। এ অবস্থায় দুই ছেলেসহ বাবার বাড়িতে থাকতেন স্ত্রী। স্ত্রী-সন্তানদের কোনো খোঁজ খবর নিতেন না রুবেল।

এসব হতাশা থেকে সকালে আট বছরের ছেলে আরাফাত ও ছয় বছরের ছেলে রিফাতকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ির পাশের একটি ধানক্ষেতে যান মা। সেখানে দুই সন্তানের মুখে বিষ ঢেলে দিয়ে নিজেওবিষ পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালান। আশপাশের লোকজন বিষয়টি দেখে তাদের উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে যান।

দুই শিশুর অবস্থা আশঙ্কাজনক জানিয়ে কিশোরগঞ্জ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক। তাদের মায়ের অবস্থা আরও খারাপ।

পাকুন্দিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মফিজুল ইসলাম বলেন, পারিবারিক অশান্তি ও হতাশা থেকে ওই নারী দুই ছেলের মুখে বিষ ঢেলে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন।