সৈয়দুর রহমান সৈয়দ- পাকুন্দিয়া ( কিশোরগন্জ) প্রতিনিধি ঃ কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় এক বৃদ্ধা মাকে মেরে ঘর থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে নাতি ও ছেলের বউয়ের বিরুদ্ধে। উপজেলার চন্ডিপাশা ইউনিয়নের কোদালিয়া এলাকায় গত ১লা ডিসেম্বর এ ঘটনা ঘটেছে।

এ বিষয়ে গত ৩ ডিসেম্বর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন বৃদ্ধা মোছাঃ রহিমা খাতুন(৭০)। অভিযোগে বলা হয়েছে ছোট ছেলে মোঃ হালিম ও পুত্রবধূ মোছাঃ কুলসুম আক্তার কোন ভরণপোষণ না করে অত্যাচার করেন। পুত্রবধূর অত্যাচারে মেয়ের বাড়িতে থাকতেন। গত ১লা ডিসেম্বর বাড়িতে থাকার সময় পারিবারিক কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ঘর থেকে আসবাবপত্র ফেলে দিয়ে ঘর দখল নেওয়ার চেষ্টা করেন পুত্রবধূ কুলসুম আক্তার ও তার ছেলে। বৃদ্ধার চিৎকারে মেঝ ছেলে মানিক সহ এলাকার লোকজন এসে স্হানীয় ভাবে সালিশ দরবারের মাধ্যমে মিমাংসার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে গত ৩ ডিসেম্বর মোছাঃ রহিমা খাতুন বাদী হয়ে পুত্রবধূ মোছাঃ কুলসুম আক্তার কে আসামি করে পাকুন্দিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে জানতে অভিযোগ অস্বীকার করে মোছাঃ কুলসুম আক্তার বলেন, তিনি আমার স্বামীর মা আমি উনাকে নিজের মায়ের মতো দেখি। আমার স্বামী বাহিরে থাকে, উনাকে আমার সাথে আমার ঘরে থাকতে বলি কিন্তু তিনি আমার সাথে থাকতে রাজি নন।

পাকুন্দিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সারোয়ার জাহান বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।