বড় দরপতনের মধ্য দিয়ে সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবস রোববার (২৪ জুলাই) দেশের পুঁজিবাজারে লেনদেন হয়েছে। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, ব্যাংক-বিমা এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন কোম্পানির শেয়ারের দাম কমায় এদিন দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ডিএসইর প্রধান সূচক কমেছে ৭৪ পয়েন্ট।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক কমেছে ১৬০ পয়েন্ট। সূচকের পাশাপাশি লেনদেন হওয়া অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম ও লেনদেন কমেছে। ফলে ঈদ পরবর্তী টানা নয় কর্মদিবসই দরপতন হলো পুঁজিবাজারে। টানা দরপতনে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন বিনিয়োগকারীরা।

ডিএসইর তথ্য মতে, বোরবার বাজারে দিনের শুরু থেকে ক্রেতার তুলনায় শেয়ার বিক্রির চাপ বেশি ছিল। ফলে এদিন মাত্র ১৪ কোটি ৪৫ লাখ ৩৯ হাজার ৫৭টি শেয়ার কেনা-বেচা হয়েছে। এতে মোট লেনদেন হয়েছে ৪৭০ কোটি ৯৭ লাখ ৭১ হাজার টাকার শেয়ার। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৬৭৬ কোটি ৯৩ লাখ ৪১ হাজার টাকার শেয়ার। অর্থাৎ আগের দিনের চেয়ে লেনদেন কমেছে।

এদিন ৩৮২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ৪২টির, কমেছে ৩১৮টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২২টি কোম্পানির শেয়ারের দাম। অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমায় প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৭৪ পয়েন্ট কমে ৬ হাজার ৫২ পয়েন্ট দাঁড়িয়েছে। ডিএসইএস সূচক ১৬ দশমিক ৭২ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৩২৪ পয়েন্টে এবং ডিএস-৩০ সূচক ৩২ পয়েন্ট কমে ২ হাজার ১৬৮ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

আজ সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ওরিয়ন ফার্মা শেয়ার। এরপর যথাক্রমে রয়েছে- মতিন স্পিনিং, কেডিএস এক্সেসরিজ, প্রাইম টেক্সটাইল, ফরচুন সুজ, সাফকো স্পিনিং, সোনালী পেপার, ন্যাশনাল ব্যাংক, শাইনপুকুর সিরামিক এবং ইন্ট্রাকো লিমিটেড।

শের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৬০ পয়েন্ট কমে ১৭ হাজার ৮০৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

এ বাজারে ২৬৯টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে ৪৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ২০৭টির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৮টির। এদিন সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৭৭ লাখ ৫৮ হাজার ৯ টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১৭ কোটি ১১ লাখ ৯ হাজার ৫২৯ টাকা।