অমিত কর্মকার, লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার পুটিবিলা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড হাজিরপাড়া এলাকায় শতবর্ষী বিধবা বৃদ্ধা ভেট্টা খাতুন ঘর উপহার পেলেন। তিনি ওই এলাকার মৃত রৌশন আলীর স্ত্রী। স্বামী ও সন্তান না থাকায় অসহায় এ বৃদ্ধার করুন অবস্থায় দিনাতিপাত করছেন। ভিক্ষার চালে পাতে ভাত জুটে। জরাজীর্ণ একটি মাটির ঘর। আছে শুধু বেঁচে থাকার আকুতি। বৃদ্ধা ভেট্টা খাতুনের দেখাশুনা করার কেউ নেই। সে খরব পেয়ে লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার অফিসার আহসান হাবীব জিতু যান। তিনি তাকে দেখে খুব বেশি অনুতপ্ত হন। তাঁর করুণ অবস্থা দেখে তাৎক্ষণিক উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শীতবস্ত্র ও নগদ অর্থ প্রদান করছিলেন। সেদিন তাকে একটি ঘর করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন সেটা অবশেষে বাস্তবায়ন হলো।

গত ১৭ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০১ তম জন্ম শতবর্ষী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার স্বরূপ ঘর পেলেন বৃদ্ধা ভেট্টা খাতুন। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভেট্টা খাতুনকে বাড়িটি হস্তান্তর করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল হক চৌধুরী বাবুল,লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহসান হাবীব জিতু, ভাইস চেয়ারম্যান এম ইব্রাহিম কবির, লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ জাকের হোসাইন মাহমুদ, পুটিবিলা ইউপির ১ নং প্যানেল চেয়ারম্যান, স্থানীয় ইউপি সদস্য সুজিত কাজল প্রমুখ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান হাবিব জিতু বলেন, মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীদের জন্য গৃহ প্রদান করার জন্য সরকার নীতিমালা গ্রহণ করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় অসহায় শতবর্ষী ভেট্টা খাতুন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার স্বরূপ তাকে ঘরটি হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।