নিজস্ব প্রতিবেদকঃ করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রতিরোধে করোনার ভ্যাকসিন প্রয়োগ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিশেষ নির্দেশনা প্রদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৪০ বছরের বেশি বয়সী সব ব্যক্তি এবং করোনার ভ্যাকসিন গ্রহণকারী ব্যক্তির পরিবার যাতে করোনার ভ্যাকসিন (টিকা) গ্রহণ করতে পারেন তা নিশ্চিত করতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার (৮ ই ফেব্রুয়ারি) মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এই নির্দেশনা প্রদান করেছেন। মন্ত্রিপরিষদের বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদেরকে এই তথ্য জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে এবং মন্ত্রিসভার অন্য সদস্যরা সচিবালয় থেকে এই বৈঠকে অংশ নেন।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানান, “প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, কেউ রেজিস্ট্রেশন করতে না পারলে ভোটার আইডি নিয়ে ভ্যাকসিন পয়েন্টে গেলে তাকে রেজিস্ট্রেশনের জন্য সহযোগিতা করা হবে। এমনকি গ্রামের সবাই ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।”

তিনি আরও বলেন, “যারা এখন পর্যন্ত টিকা নিয়েছেন সবাই সুস্থ আছেন। মন্ত্রীরাও যারা টিকা নিয়েছেন তাদের তো বয়স বেশি, তবে তারা ভালো আছেন। করোনার টিকা নিয়ে ভয় কাটাতে বেশি করে প্রচারের-প্রচারণার প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।”

বাংলাদেশে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার যে টিকা প্রয়োগ করা হচ্ছে তার কার্যকারিতা ৭০ ভাগ উল্লেখ করে সবাই যেন টিকা নেয় এই আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবাই টিকা নিলে করোনা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভবপর হবে।