জসীম উদ্দীন, শার্শা উপজেলা প্রতিনিধিঃ “বন্ধুত্বের বন্ধনে ভালোবাসা” এই স্লোগানের মধ্য দিয়েই বিভিন্ন আনন্দ উল্লাসের মধ্য দিয়ে বার্ষিক বনভোজন-২০২১ পালন করলো বেনাপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এস এস সি “ব্যাচ-৯৯” এসোসিয়েশনের সদস্য’রা।

আজ শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টার পরে বেনাপোল বাজারের মেসার্স আজাদ ট্রেডার্সের সামনে থেকে দোয়া অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে “মোজাফ্ফার গার্ডেন & রিসোর্ট” খড়িবিলা, সাতক্ষীরার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন এস এস সি “ব্যাচ-৯৯”। অত্যন্ত জাঁকজমকপূর্ণভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

দিনভর আড্ডা, গল্প, গান, নাচ, খাওয়া দাওয়া ও ভ্রমণের মাধ্যমে বিভিন্ন আনন্দ-উল্লাসে মেতে ওঠেন “ব্যাচ-৯৯” এসোসিয়েশনের সদস্য’রা।

স্কুল জীবন শেষ করে ঢাকা, চট্রগ্রাম, খুলানাসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নানা পেশায় জড়িত এস এস সি-১৯৯৯ ব্যাচের সাবেক এই শিক্ষার্থীরা। শত ব্যস্ততার মাঝেও  আয়োজিত এ বনভোজনে অংশগ্রহণ  করেন তারা।

সাতক্ষীরা মোজাফ্ফার গার্ডেন & রিসোর্টের সৌন্দর্য উপভোগ করে দুপুরের খাবার খেয়ে র‌্যাফেল ড্র শেষ করে আবার বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

এসময় “ব্যাচ-৯৯”  এসোসিয়েশনের সদস্য’রা আনন্দঘন কন্ঠে বলেন, আজ বন্ধুরা সব একত্রিত হয়ে এমন একটা সুন্দর দিন উপভোগ করতে পেরে সত্যিই আমরা আনন্দে আপ্লূত। সেইসাথে প্রতি বছর তারা দেশের বিভিন্ন মনোরম স্থানে এস এস সি-১৯৯৯ ব্যাচের বন্ধুদের নিয়ে বার্ষিক আনন্দ ভ্রমণের আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

“ব্যাচ-৯৯” এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শাদিমুজোহা (জয়) বলেন, বনভোজনে সার্বিক সহযোগিতার জন্য বন্ধু শাহাবুদ্দীন রনি, শেখ তরিকুল, লিপু, বাবু, মাসুম রনি, শহীদ আজাদ , পাপ্পু, কামাল, জয়নাল আবেদীন, রাসেল, শরিফ, জাহাঙ্গীর, আতাহার, মুসলিম, জসীম উদ্দীন, রফিকুল, মফিজুর, রাজ্জাক, কামরুল, জহির রিপন, সেলিম, ইসমে আজম, শুকুর আলী, পিন্টু এবং সাইফুল সহ বনভোজনে জড়িত সকলের প্রতি ভালবাসা জ্ঞাপন করেন।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (২২ জানুয়ারি ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ) সন্ধ্যা ৭টায় সময় “ব্যাচ-৯৯” এসোসিয়েশন গঠনের লক্ষ্যে ও সকলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে বেনাপোল বাজারে মেসার্স আজাদ ট্রের্ডাসের একটি হল রুমে বেনাপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১৯৯৯ ব্যাচের ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা শীর্ষক এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় সভায় পরবর্তী খন্ডকালীন বেশকিছু সামাজিক কর্মসূচি পালন করার উদ্দেশ্যে সর্বসম্মতিক্রমে ২১ সদস্য বিশিষ্ট দুই বছর মেয়াদে একটি কার্যকারী কমিটি গঠন করা হয়েছিলো।

কার্যকরী কমিটির তালিকা-

১. সভাপতিঃ মোঃ শহীদ আজাদ
২. সহ-সভাপতি-(১) মোঃ মুসলিম উদ্দীন পাপ্পু
৩. সহ-সভাপতি-(২) মোঃ কামাল হোসেন মোড়ল
৪. সাধারণ সম্পাদকঃ শাদিমুজ্জোহা জয়
৫. যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক-(১) মোঃ জয়নাল আবেদীন
৬. যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক-(২) মোঃ সাঈদ মাহমুদ রাসেল বিশ্বাস
৭. সাংগঠনিক সম্পাদকঃ মোঃ শরিফুল ইসলাম শরিফ
৮. সহ-সাংগঠনিক সম্পাদকঃ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন
৯. অর্থ বিষয়ক সম্পাদকঃ আতাউর রহমান আতা
১০. সহ-অর্থ বিষয়ক সম্পাদকঃ মোঃ মুসলিম আলী
১১. প্রচার সম্পাদকঃ মোঃ জহিরুল ইসলাম রিপন
১২. দপ্তর সম্পাদকঃ মোঃ জসিম উদ্দীন
১৩. সহ-দপ্তর সম্পাদকঃ মোঃ রফিকুল ইসলাম
১৪. সাংস্কৃতিক সম্পাদকঃ মোঃ মফিজুর রহমান মফিজ
১৫. ক্রীড়া সম্পাদকঃ মোঃ আব্দুর রাজ্জাক
১৬. সমাজকল্যাণ সম্পাদকঃ মোঃ মুছা করিম।

সদস্য-

১৭. মোঃ ইসমে আজম রিপন
১৮. মোঃ শুকুর আলী
১৯. মোঃ কামরুজ্জামান
২০. মোঃ সেলিম হোসেন
২১. মোঃ মনিরুজ্জামান পিন্টু।

উপদেষ্টা পরিষদে আছেন-

১. মোঃ সাহাবুদ্দিন রনি
২. মোঃ মফিজুর রহমান বাবু
৩. মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন লিপু
৪. শেখ তরিকুল ইসলাম
৫. মোঃ আব্দুল্লা আল মাসুম রনি।