স্টাফ রিপোর্টারঃ চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠিতব্য চট্টগ্রামের পটিয়া পৌর নির্বাচনে ভোট শুরুর আগমুহূর্তে এক কাউন্সিলর প্রার্থীকে অপহরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আজকে রবিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ভোর ৬ টার দিকে পটিয়া পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থীকে একটি গাড়িতে তুলে নিয়ে অপহরণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়াও চট্টগ্রামের পটিয়া পৌরসভায় একাধিক ভোটকেন্দ্রে সংঘর্ষের খবরও পাওয়া গেছে। এমনকি পটিয়ার ১ নম্বর ওয়ার্ডের একটি কেন্দ্রে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটেছে।

অপহরণের শিকার কাউন্সিলর প্রার্থীর নাম আবদুল খালেক। তিনি ১ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর।স্থানীয় আওয়ামী লীগ এবার তাকে সমর্থন না দেওয়ায় স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছিলেন।

আবদুল খালেকের চাচাতো ভাই শামসুল আলম গণমাধ্যমকে বলেন, প্রার্থী আবদুল খালেক ও তার সমর্থকরা আল্লাই ওষাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশের একটি মাজার জিয়ারত করছিলেন। মাজার জিয়ারতের পরপরই ১০ থেকে ২০ জন যুবক এসে তাদের মোবাইল ফোন কেড়ে নেন এবং কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুল খালেককে সাদা একটি গাড়িতে করে কক্সবাজারমুখী সড়কে নিয়ে চলে যায়।

আর এ বিষয়ে পটিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম মজুমদার বলেন, আবদুল খালেককে তুলে নেওয়ার অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য যে, পটিয়া পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের আল্লাই ওষাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পুরুষ কেন্দ্রে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনাও ঘটেছে। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আবদুল মান্নান জানান, সকাল ১০টার দিকে কেন্দ্রের বাইরে একটি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়াও মহিলা কেন্দ্রে হইচই/গোলমাল হয়।