আসিফ কাজল, ঝিনাইদহ থেকেঃ ভারতীয় ভেরিয়েন্ট সনাক্ত হওয়ার পর ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্ত দিয়ে অবৈধ পথে উভয় দেশে যাতায়াত বন্ধ হচ্ছে না। সীমান্তে বিজিবি এই অবৈধ পারাপার ঠেকাকে হিমশিম খাচ্ছে। গত দুই দিনে অবৈধভাবে ভারত থেকে বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাওয়ার সময় নারী ও শিশুসহ ৮ জনকে আটক করেছে বিজিবি। সেই সাথে পারাপারে সহযোগিতা করার জন্য এক দালালকেও আটক করা হয়। মঙ্গলবার ও সোমবার মহেশপুর উপজেলার নয়াপাড়া, বাঘাডাঙ্গা ও খোশালপুর সীমান্ত এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো ঢাকার মধ্যবাড্ডার মোল্লাপাড়ার আলী আহম্মদের ছেলে আমিন উদ্দীন (৩৮), গোপালগঞ্জের কালীনগর গ্রামের ননী গোপালের ছেলে ভজন বড়াই, খুলনার দাকোপ উপজেলার গুনারী গ্রামের মৃত হোসেন গাজীর ছেলে মুসলিম গাজী (৩৭), বান্দরবান সদর উপজেলার দোয়াছড়ি গ্রামের জাফর মিয়ার ছেলে রফিক হোসেন (৩১), তার স্ত্রী নুর ফাতেমা আক্তার (২৭), মেয়ে জামেলা খাতুন (৯), ছেলে ইউসুফ (৬) ও দাউদ (২)। এছাড়া পারাপারে সহযোগিতা করার অপরাধে মহেশপুর উপজেলার বাঘাডাঙ্গা গ্রামের ছাদের মন্ডলের ছেলে শফিকুল মন্ডল (৩৭) কে আটক করা হয়। মহেশপুর ব্যাটালিয়ন (৫৮ বিজিবি) এর সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম খান মঙ্গলবার ই-মেইল বার্তায় এ তথ্য জানান। এ ঘটনায় মহেশপুর থানায় মামলা দায়ের করে তাদের থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।