আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ শারীরিক অসুস্থতার কারণে নির্ধারিত দিনে আদালতে উপস্থিত হতে পারেননি মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চি। স্থানীয় সময় সোমবার দেশটির একটি আদালতে তার বিরুদ্ধে হওয়া এক মামলার শুনানির দিন ধার্য ছিল বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

সু চির আইনজীবী প্যানেলের সদস্য মিন মিন সো জানিয়েছেন, ৭৬ বছর বয়সী সু চি শারীরিক অসুস্থতার কারণে আদালতে উপস্থিত হতে পারেননি। তার মাথা ঘুরছে। শরীরও দুর্বল। ঘুমঘুম লাগছে তার।

তিনি জানান, সু চি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হননি; এটা নিশ্চিত হওয়া গেছে। তবে তিনি এই মুহূর্তে কোনও যানবাহনে উঠে কোথাও যাওয়ার মতো শারীরিক অবস্থায় নেই।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সামরিক বাহিনীর অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত হন মিয়ানমারের প্রেসিডেন্ট ইউ উইন মিন্ট এবং স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি। এ দুজন ছাড়াও গ্রেপ্তার করা হয় অসংখ্য রাজনৈতিক নেতাকে।

এরপর বেশ কয়েকটি মামলা করা হয় ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) নেত্রী সু চির বিরুদ্ধে। মামলার শুনানির জন্য বেশ কয়েকবার আদালতে তোলা হয় তাকে।

সেনাবাহিনী মিয়ানমারের ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকেই দেশজুড়ে সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। সাধারণ মানুষ রাস্তায় বেরিয়ে আসে। আন্দোলনকারীদের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে অনেকবার। এরই মধ্যে সহিংসতায় প্রাণ গেছে বহু মানুষের।