নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দিয়াগো ম্যারাডোনা আর নেই। দাবানলের মতো সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়েছিল খবরটা ২৫ শে নভেম্বর। প্রায় চার মাস কেটে গিয়েছে। তবু ম্যারাডোনার মৃত্যু যেন রহস্যই থেকে গিয়েছে। সেই রহস্য উদ্ঘাটনের দাবিতেই পথে নামল আর্জেন্টিনাবাসী।

তাঁদের দাবি, ‘ম্যারাডোনা মারা যাননি, তাঁকে খুন করা হয়েছে’। চাঞ্চল্যকর এমন দাবি নিয়েই পথে নামল প্রিয় নায়কের দেশবাসী। শুধু রহস্যের কিনারা নয়, তাঁদের দাবি ম্যারাডোনাকে যাঁরা খুন করেছেন, শাস্তি দিতে হবে তাঁদেরও। বুয়েনাস আইরেসের অবেলিস্কো স্মৃতিস্তম্ভ থেকে শুরু পদযাত্রা। রাজধানীর বিস্তীর্ণ এলাকায় যানজটের সৃষ্টি করে পতাকা হাতে চলতে থাকে ম্যারাডোনার উদ্দ্যেশ্যে গান গাওয়া। সেই পদযাত্রায় ২ মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে যোগ দিয়েছিলেন ম্যারাডোনার প্রাক্তন স্ত্রী ক্লদিয়া ভিলাফানেও।

ম্যারাডোনার মৃত্যুরহস্যের কিনারা করতে গঠন করা হয়েছে মেডিকাল বোর্ড। নানা রকম শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপের নায়ক। মৃত্যুর কিছু দিন আগে তাঁর মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচারও করা হয়েছিল। তদন্তকারীরা খোঁজার চেষ্টা করছেন ঠিক মতো দেখভাল করা হয়েছিল কি না ম্যারাডোনার।