নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের সময় সংঘটিত হত্যা, লুণ্ঠন, অগ্নিসংযোগ, অপহরণ, আটক, নির্যাতনসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ৯ জনের মধ্যে ৩ জনের যাবজ্জীবন, ৫ জনের ২০ বছর করে কারাদণ্ড ও আব্দুল লতিফ নামের একজনকে খালাস দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।

আজকে বৃহস্পতিবার (১১ ই ফেব্রুয়ারি) বেলা পৌনে ১২ টার দিকে ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল এ রায় ঘোষণা করেছেন। সদস্য বিচারপতিরা হলেন; বিচারপতি আমির হোসেন ও বিচারপতি আবু আহমেদ জমাদার।

রায় ঘোষণার পর রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী প্রসিকিউটর মোখলেসুর রহমান বাদল বলেন, এটিই প্রথম মামলা যেখানে একজন আসামিকে খালাস দিলেন ট্রাইব্যুনাল। আর এটিই প্রথম মামলা যেটিতে কোনো আসামির মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়নি।

আসামিদের বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের সময় চারজনকে হত্যা এবং ৯ জনকে আটক এবং নির্যাতনের চারটি অভিযোগ রয়েছে। গত ২০১৮ সালের ১৩ ই মার্চ তাদের বিচার শুরু হয়েছিল। বিচারকাজ শেষ হয় গতবছরের ২৬ শে জানুয়ারি। আসামিদের মধ্যে চারজন পলাতক ছিলেন। আজকে পাঁচজনকে হাজির করা হয় ট্রাইব্যুনালে।

কিন্তু রায়ের দিন সকালে পলাতক এক আসামি আলিমুদ্দিন খান ট্রাইব্যুনালে হাজির হওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্যকর অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। ট্রাইব্যুনাল সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রায় ঘোষণার পর সে আসল আসামি কিনা যাচাই করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।