উৎপল ঘোষ(ক্রাইম রিপোর্টার);
যশোর অভয়নগরে নৈশপ্রহরী মিন্টু তরফদার(৬০)হত‍্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে দুই জনকে মেহেরপুর থেকে গ্রেফতার করেছে পিবিআই যশোর।
আজ সোমবার ২২ আগষ্ঠ সকালে মেহেরপুর গাংনী উপজেলার গাজীপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।এ সময় তাদের নিকট থেকে নিহত মিন্টুর মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।
পিবিআই যশোর পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন জানান,নিহত মিন্টু থরফদার তালতলা এলাকার সরকার গ্রুপের ঘাটে নৈশপ্রহরী ছিলেন।গত শনিবার ২০ আগষ্ঠ সকাল ৯ টার দিকে অফিসের একটি কক্ষ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।মিন্টু তরফদারের মুখমন্ডলে রক্তাক্ত ও গলায় হলুদ রঙের গামছা প‍্যাঁচানো ছিল।এ ঘটনায় মিন্টুর স্ত্রী জুলেখা বেগম একটি হত‍্যা মামলা দায়ের করেন।
তিনি আরো জানান,পুলিশের পাশাপাশি পিবিআই ঘটনা ছায়া তদন্ত শুরু করে।নিহতের মোবাইল ফোন ট্রাকিং করে ঘাতক রায়হান ও আশিককে শনাক্ত করা হয়।তারা মেহেরপুর উপজেলার কাজীপূর খালা বাড়িতে আত্নগোপনে ছিল।
এরপর সেখানে অভিযান চালিয়ে আজ সকালে তাদের গ্রেফতার করা হয়।আটককৃতরা হত‍্যার দায় স্বীকার করে জুডিশিয়াল ম‍্যাজিষ্ট্রেট পলাশ কুমার দালালের আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।তারা আদালতে আরও জানিয়েছে,গভীর রাতে সরকার গ্রূপ ঘাট এলাকায় ঘোরাঘুরি করছিল।নৈশপ্রহরী তাদের কানধরে উঠবস করায়।ওই অপমানের পরিশোধ নিতে তারা পরিকল্পিতভাবে মিন্টুকে হত্যা করে।বিচারক জবানবন্দি শেষে আটক রায়হান ও আশিককে কারাগারে পাঠিয়েছেন বলে জানান পুলিশ সুপার রেশমা শারমিন।