উৎপল ঘোষ, (ক্রাইম রিপোর্টার) যশোরঃযশোর অভয়নগর ১৩ কেজি গাঁজাসহ ছাত্রদল কর্মী মাদক সম্রাট আল – মামুন বিশ্বাস(২৫) আটক করেছে অভয়নগর থানা পুলিশ। অপর এক মাদক কারবারী পালিয়ে যায় বাদশ রবিবার ২১ মার্চ ভোর বেলায় উপজেলার চলিশিয়া ইউনিয়নের বাগদাহ গ্রামের পশ্চিম পাড়া থেকে গাঁজা সহ মামুনকে আটক করে পুলিশ।আটককৃত মামুন বাগদাহ গ্রামের চিহ্নিত গাঁজা ব‍্যবসায়ী  একাধিক মামলার আসামী আতিয়ার বিশ্বাসের ছেলে।সে চলিশিয়া ইউনিয়ন ছাত্র দলের কার্য নির্বাহী কমিটির সদস‍্য ছিল।উদ্ধারকৃত চার বান্ডিল গাঁজাসহ মামুনকে থানা হেফাজতে রাখা হয়েছে।বাগদহ পশ্চিম পাড়ার মাদক সম্রাট আতিয়ার বিশ্বাস দীর্ঘদিন গাঁজার ব‍্যবসা চালিয়ে যাওয়ার শতাধিক অভিযোগ রয়েছে।থানায় একাধিক মামলাও রয়েছে। এখন তার ছেলে মামুন পিতার ব‍্যবসার হাল ধরেছে প্রায় পাঁচ বছর।একই গ্রামের উজ্জ্বল হোসেন,আব্দুর রাজ্জাক বিশ্বাস,হামিদ বিশ্বাস ও বাদশা বিশ্বাস উপজেলার পৌরসভাসহ ভৈরব নদের উত্তর পূর্ব জনপদের চারটি ইউনিয়ন ও দক্ষিণ জনপদের চারটি ইউনিয়নে গাঁজা ও ইয়াবা পাইকারি সরবরাহ করে থাকে। আইন শৃঙ্খলার হাতে একাধিকবার গ্রেফতার হলেও আইনের ফাঁক ফোকর দিয়ে বেরিয়ে এসে পুনরায় বীরদর্পে মাদক ব‍্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। এসব মাদক ব‍্যবসার দৌরাত্বের কারণে ছাত্র সমাজ,যুব সমাজ আজ ধ্বংস হচ্ছে।এ ব‍্যাপারে অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুজ্জামান জানান,১৩ কেজি ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ মামুন নামে এক যুবককে আটক করা হয়েছে। পলাতক মাদক কারবারী বাদশাকে আটকের জন‍্য পুলিশি অভিযান চলছে।মামলা দায়ের প্রক্রিয়া চলমান আছে।